সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ম‍ুর্শিদাবাদের ৬ য‍ুবককে দিনভোর জেরা ও করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে, রিপোর্ট আসলে নিয়ে যাওয়া হবে দিল্লি

 



পুবের কলম প্রতিবেদক‌: শনিবার ভোরে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ)-র হাতে গ্রেফতার হওয়া মুর্শিদাবাদের ৬ সন্দেহভাজন ২২ জনের সঙ্গে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্র‍ুপে যুক্ত ছিল। এনআইএ সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী ওই হোয়াটস অ্যাপে সব মেসেজ ডিলিট ফরম্যাটে পেয়েছেন তদন্তকারীরা। সেই ডিলিট ফরম্যাটে পাওয়া মেসেজ উদ্ধার করতে এখন এনআইএ-র আইটি সেল প্রযুক্তিগত তদন্ত শুরু করেছে। 


শনিবারই কলকাতার এনআইএ-র বিশেষ আদালত (ব্যাঙ্কশাল আদালত) ট্রানজিট রিমান্ড মঞ্জুর করে। আগামী ২৪ তারিখের মধ্যে দিল্লির পাতিয়ালা হাউজ কোর্টে ধৃত ৬ জনকে হাজির করা হবে বলে জানায় এনআইএ। তবে এখনও সন্দেহভাজনদেরকে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয়নি। এনআইএ জানিয়েছে, অভিযুক্তদের করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছে। সেই রিপোর্ট আসলে তারপর অভিযুক্তদের দিল্লি নিয়ে যাওয়া হবে। 


এ দিকে এ দিন রবিবার দিনভর অভিযুক্তদের জেরা করল রাজ্য ও কলকাতা পুলিশের এসটিএফ, মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশ, সেন্ট্রাল আইবির মতো একাধিক তদন্তকারী দল। এনআইএ সূত্রে খবর, শনিবার সন্ধ্যায় আদালত অভিযুক্তদের ট্রানজিট রিমান্ড মঞ্জুর করার পর সল্টলেকে এনআইএ দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। 


সেখানে একদফা জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁদের ওই রাতেই ১১টা নাগাদ দক্ষিণ বিধাননগর থানায় নিয়ে গিয়ে রাখা হয়। এরপর রবিবার সকাল থেকে এনআইএ অফিসারদের উপস্থিতিতে ওই থানায় গিয়ে মুর্শিদাবাদের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনীশ সরকার ও তাঁর তিন আধিকারিক জেরা করে। একইভাবে রাজ্য পুলিশের এসটিএফ, সেন্ট্রাল আইবির তদন্তকারীরা সন্দেহভাজনদের জেরা করে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only