বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ফিরহাদ হাকিমের স্নেহধন্য বাদুড়িয়া পৌরসভার প্রশাসক তুষার সিংহ প্রয়াত

 


ইনামুল হক, বসিরহাট: বাদুড়িয়া পৌরসভার প্রশাসক তুষার সিংহ প্রয়াত হলেন।  মধ্য চল্লিশের এই তরুণ তুর্কি চলে যাওয়ায় তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে  শোকের ছায়া।  বাদুড়িয়া পৌরসভার বিদায়ী চেয়ারম্যান ও প্রশাসক বছর পঁয়তাল্লিশের তুষার সিংহ দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। গত ছ'মাস ধরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। শেষ রক্ষা হল না। বুধবার সকাল ৮ টা৪৫ মিনিটে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।  দীর্ঘদিন ধরে বাদুড়িয়া পৌরসভার দক্ষতার সঙ্গে চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করে গেছেন। বাদুড়িয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি হয়ে  দলের দায়িত্ব সামলেছেন নিপুণ হাতে। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া  রাজনৈতিক মহলে। তিনি বাদুড়িয়া পৌরসভার  চার নম্বর ওয়ার্ডের আনারপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি প্রথমবার তৃণমূল কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়ে ২০১৩ সালের শেষের দিকে বাম কংগ্রেস বোর্ডকে ভেঙে দিয়ে প্রথমবার বাদুড়িয়া পৌরসভায় তৃণমূল কংগ্রেসকে ক্ষমতায় আনেন। তিনি চেয়ারম্যান পদে অভিষিক্ত  হন। ২০১৫ সালে ফের নির্বাচিত হয়ে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বাদুড়িয়া পুরসভার চেয়ারম্যান পদে আসীন  হন তুষার সিংহ।  অল্প বয়সে চলে যাওয়ায় একজন দক্ষ রাজনীতিবিদকে হারালো  বাদুড়িয়াবাসি। তাদের প্রিয় কাছের মানুষকে হারিয়ে একটা শুন্যতা অনুভব করছে পৌরসভার কাউন্সিলর থেকে বাদুড়িয়া ব্লকের বিস্তীর্ণ  অঞ্চলের মানুষ। তিনি ছিলেন পুর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের স্নেহধন্য। তার এই অকাল প্রয়াণে শোকার্ত উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি ও কো অর্ডিনেটর,  জেলা পরিষদের পূর্ত ও পরিবহন কর্মাধ্যক্ষ  নারায়ন গোস্বামী, বাদুড়িয়া বিধানসভা তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের কৃষি ও সেচ কর্মাধ্যক্ষ  বুরহানুল মোকাদ্দিম লিটনসহ দলীয় নেতারা। বলাবাহুল্য  দলীয় মতাদর্শকে মান্যতা দিয়ে বাদুড়িয়া এলাকার একাধিক উন্নয়ন এর কাজ তার হাত দিয়ে হয়েছে। ফিরহাদ হাকিমের পরামর্শ  ও সহযোগিতা পেয়েছেন সবসময় ।  রাস্তাঘাট, নিকাশি ব্যবস্থা ছাড়াও বাজারের উন্নয়ন, ছোটদের জন্য পার্ক, বাদুড়িয়া বাস টার্মিনাস থেকে নতুন বাস রুট এর সূচনা, বাদুড়িয়ায় ইছামতীর উপর কাটাখাল সেতু নির্মাণে তার ভূমিকা ছিল। শতাব্দীপ্রাচীন পুর ভবনের নতুন করে  নির্মাণের  কাজ তার হাত দিয়েই শুরু হয়েছিল। হিন্দু-মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের সঙ্গে  সম্প্রীতির সম্পর্ক ছিল অটুট। ২০১৭ সালে বাদুড়িয়ায় একটি সাম্প্রদায়িক অস্থিরতার ঘটনার পর থেকে তিনি চালু করেছিলেন সম্প্রীতি মেলা। তার এই অকাল প্রয়াণে বাদুড়িয়ার রাজনৈতিক মহলে শোকের ছায়া। এদিন দুপুরের পরপরই তার দেহ চলে আসে বাদুড়িয়া পৌরসভা ভবনের সামনে সেখানে দলীয় নেতা-কর্মী থেকে বাদুড়িয়া পৌরসভার বাসিন্দারা তাকে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

এছাড়াও তুষার সিংহের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন  বসিরহাট লোকসভার প্রাক্তন সাংসদ ইদ্রিস আলী। তিনি তুষার সিংহের মৃত্যুর খবর পেয়ে কলকাতা থেকে চলে আসেন বাদুড়িয়ায় । তার মরদেহ পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করে আত্মীয় পরিজন ও দলীয় কর্মীদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only