বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সাত দশকে ৩ কোটি মানুষ হত্যা করেছে আমেরিকা, ২০ বছরে মার্কিন যুদ্ধে গৃহহীন ৩ কোটি ৭০ লক্ষ

 


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ আক্ষেপ করে কবি লিখেছিলেন– ‘যুদ্ধ যদি আকাশ ঢাকে / সূর্য তবে উঠবে কোথায়। / মাটি যদি রক্ত মাখে / ফুলগুলো সব ফুটবে কোথায়?’ কিন্তু কবিতা দিয়ে তো আর রাজনীতি হয় না। কবির কথায় কিস্সু যায় আসে না। বিশ্ব চলে রাজনীতিকদের দাদাগিরিতে। যার যত শক্তি তার তত প্রভাব। অন্যদেরকে তাঁবে রাখতে হলে সামরিক শক্তিতে বলীয়ান হওয়া চাই। অস্ত্রের ঝনঝনানি শুনলে যেন আপামর বিশ্ববাসী থরহরি কম্পমান হয়। তাই পাহাড় প্রমাণ সমস্যা থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে বাজানো হয় যুদ্ধের বাদ্য। অনেক পরিকল্পনা করে ছক কষে চাপিয়ে দেওয়া হয় যুদ্ধ। পছন্দের সরকার বসিয়ে সেই দেশকে পুতুলের মতো নাচাতে ঘটানো হয় সেনা অভু্যত্থান। তারপর নির্বাচিত সরকারের রাষ্ট্রপ্রধান  চলে যান কারাগারের অন্ধকারে। আর সেই সুযোগে সংশ্লিষ্ট দেশের মূল্যবান খনিজ সম্পদ ও প্রাকৃতিক সম্পদের ভাণ্ডার কুক্ষিগত করে যুদ্ধবাজ শকুনী ও হায়নার দল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই ফর্মুলাতেই চলছে আধিপত্য বিস্তারের লড়াই। আর লোলুপ রাষ্ট্রনেতাদের অস্ত্র প্রতিযোগিতার বিষবাষ্পে নাভিশ্বাস চলছে ৭৫০ কোটি মানুষের বাসযোগ্য পৃথিবীর।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের (১৯৩৯-’৪৫) পর থেকে বিগত সাড়ে সাত দশকে শুধু মার্কিন যুদ্ধে ৩৭ দেশের অন্তত ৩ কোটি মানুষের অকালমৃতু্য হয়েছে। যা প্রথম বিশ্বযুদ্ধে (১৯১৪-’১৯) নিহতের প্রায় দ্বিগুণ। পাশাপাশি ২০০০ সালের পর থেকে অর্থাৎ ৯-১১ পরবর্তী গত ২০ বছরের যুদ্ধে নিহতের সংখ্যা ৮ লক্ষাধিক এবং আবার গৃহহীন হয়েছেন ৩ কোটি ৭০ লক্ষ মানুষ। মার্কিন নেতৃত্বে ন্যাটোজোটের অংশগ্রহণে কথিত সন্ত্রাস-বিরোধী এই যুদ্ধে শুধুমাত্র আমেরিকার খরচ হয়েছে আনুমানিক ৬.৪ ট্রিলিয়ন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় ৪৬,৯৭,২৫,৭৬,০০,০০,০০০ টাকা। ‘গ্লোবাল রিসার্চঃ সেন্টার ফর রিসার্চ অন গ্লোবালাইজেশন’ এই খতিয়ান প্রকাশ করেছে। রিপোর্টটি তৈরি করেছেন প্রখ্যাত মার্কিন ইতিহাসবিদ জেমস এ লুকাস।

এই চাঞ্চল্যকর রিপোর্টে বলা হয়েছে  ৯/১১-র পর সিরিয়া,ইরাক, আফগানিস্তান,লিবিয়া,পাকিস্তান,লেবানন,সোমালিয়া, ইয়েমেন প্রভৃতি দেশে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধ চাপিয়ে দেন তদানীন্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জুনিয়র বুশ। বেছে বেছে মুসলিম দেশগুলোর ওপর যুদ্ধ চাপিয়ে দিতে তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার। এই যুদ্ধে ৮ লক্ষ ১০ হাজার মানুষকে হত্যার পাশাপাশি প্রায় ৭৫ লক্ষ মুসলিম সারাজীবনের জন্য পঙ্গু বা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়েছেন। একইসঙ্গে পৌনে ৪ কোটি মানুষ ঘরবাড়ি হারিয়ে উদ্বাস্তু হয়েছেন। ৬.৪ ট্রিলিয়ন ডলার খরচা করে ৮ মুসলিম দেশে এই হত্যালীলা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে মার্কিন নেতৃত্বে পশ্চিমা জোট। পশ্চিমাদের যুদ্ধবিমান থেকে ফেলা নানা রকম বোমা এবং সেনাদের ছোড়া গুলি,কামান,বারুদে ধ্বংস হয়েছে এদের বসতবাড়ি। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রত্যেক নিহতের বিপরীতে আরও ১০ গুণ মানুষ আহত হন। সেই হিসেবে গত ৭৫ বছরে ৩ কোটি মানুষ নিহত হলে আরও অন্তত ৩০ কোটি মানুষ জখম হয়েছেন।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only