বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিধানসভার ৯ ও ১০ সেপ্টেম্বর বিধানসভার অধিবেশন, বিধায়ক থেকে সাংবাদিক অধিবেশন শুরুর আগে সবার কোভিড পরীক্ষা



করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর গত ২৬ মার্চ থেকে বন্ধ ছিল পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার অধিবেশন। অবশেষে ফের  বসতে চলছে অধিবেশন। তবে প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে দু'দিন করে স্বল্পকালীন অধিবেশন বসবে বলেই জানানো হয়েছে। আর এই অধিবেশনের আগে প্রত্যেকের র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেস্ট হবে বলেই জানালেন রাজ্য বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।  তিনি জানিয়েছেন, আগামী ৯ এবং ১০ সেপ্টেম্বর বিধানসভা অধিবেশনের আগে ৮ তারিখে বিধানসভা জীবাণুমুক্ত করা হবে।  পাশাপাশি বিধায়ক, সাংবাদিক, নিরাপত্তারক্ষী সহ সকল কর্মীদেরও কোভিড-১৯ পরীক্ষা হবে।


আগামী ৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর এই টেস্টের দিন ঠিক করা হয়েছে। বিধানসভার মূল ফটকে করা হবে এই টেস্টের ব্যবস্থা। ৮ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল ৫টা ও ৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে ১২টা অর্যন্ত হবে এই র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেস্ট। আধ ঘণ্টার মধ্যে টেস্টের রেজাল্ট জানিয়ে দেওয়া হবে। যাঁরা নেগেটিভ হবেন, তাঁরাই শুধুমাত্র বিধানসভার মধ্যে ঢোকার অনুমতি পাবেন। আর যাঁদের রেজাল্ট নেগেটিভ আসবে না, তাঁদের সেখানে উপস্থিত স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নির্দেশ অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। 


পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, বিধানসভার মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিধায়কদের বসতে হবে। যারা বয়স্ক বিধায়ক তারা নিচের আসনে বসবেন এবং যারা কম বয়সের সদস্য রয়েছেন তারা বসবেন ওপরের ভিজিটারস গ্যালিরিতে । এবার বিধানসভার মধ্যে সমস্ত সাংবাদিক বন্ধুরা প্রবেশ করতে পারবেন না বলেও উল্লেখ করেছেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। হাতেগোনা কয়েকটি সংবাদপত্র বা মিডিয়া হাউস ভেতরে প্রবেশ করতে পারবে । কারণ জায়গা ছোট হওয়ায় ভিড় বেশি বারানো যাবে না। তাই নির্দিষ্ট সংখ্যক মিডিয়া হাউজ বিধানসভায় প্রবেশ করতে পারবে বলে এদিন তিনি জানিয়েছেন । এমনকি বিধানসভার মধ্যে গাড়ি শুধুমাত্র প্রবেশ করবে, আবার বেরিয়ে যাবে । গাড়ি দাঁড়াতে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে বিমানবাবু।


শুধু তাই নয়, বিধানসভার অন্দরে অধিবেশনের সময় যাতে বিধায়কদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হবে বলে জানিয়েছেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রাথমিক ভাবে বয়স্ক বিধায়কদের বিধানসভার নীচের তলায় ও অল্প বয়স্ক বিধায়কদের উপরের তলায় বসতে দেওয়া হবে। সেইসঙ্গে সংবাদমাধ্যমের সবাইকে এই সময় অধিবেশনে থাকা অনুমতি দেওয়া যাবে না। শুধুমাত্র কয়েকজনকেই সেই অনুমতি দেওয়া হবে।


বিধানসভার অন্দরে গাড়ি ঢুকতে দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি বলেই জানিয়েছেন তিনি। কারণ, বিধানসভার অন্দরে জায়গা কম হওয়ায় গাড়িগুলিকে অন্য জায়গায় দাঁড়ানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। বিমানবাবু জানিয়েছেন, যাতে কোনও ভাবেই সংক্রমণ ছড়াতে না পারে তার জন্য সব রকমের বন্দোবস্ত রেখেছেন তাঁরা। এই সময় বাইরে থেকে কোনও অতিথি অধিবেশনে উপস্থিত থাকতে পারবেন না বলেই জানিয়েছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only