মঙ্গলবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিভেদ ছড়াতেই সুদর্শন টিভির অপপ্রচারঃ আইএএস অফিসার



প‍ুবের কলম প্রতিবেদক‌: ইউপিএসসি পরীক্ষায় দেশের মুসলিমরা অধিক সংখ্যায় উত্তীর্ণ হচ্ছে ক্রমশ। আর তা নিয়ে মাথাব্যথা হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠীর। সুদর্শন নিউজ টিভি চ্যানেলের প্রধান সম্পাদক প্রশ্ন তুলেছেন, মুসলিমদের সাফল্য নিয়ে। তিনি একে ইউপিএসসি জিহাদ আখ্যায় ভূষিত করেছেন। তবে ইউপিএসসিকে এভাবে কলঙ্কিত করায় তার বিরুদ্ধে সরব হয়েছে আইএএস, আইপিএস পেশার মানুষজন। 


কেরলের আইএএস অফিসার গোকুল জি আর এর তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, ইউপিএসসির উপরে আক্রমণ চরম অবমাননাকর এবং দেশের মানুষকে ভাগ করার একটি চক্রান্ত। এটি মানুষের মধ্যে ভুল তথ্য ছড়িয়ে দিচ্ছে। সম্প্রীতি নষ্ট করার লক্ষ্যেই এটি ছড়ানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ইউপিএসসির বিশ্বাসযোগ্যতা কোনও ঘটনাচক্রের ব্যাপার নয়। আমাদের সাধারণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতারা, প্রধানমন্ত্রীরা প্রচুর সময়, শ্রম এবং ইচ্ছা নিয়োজিত করেছেন এটি গড়ে তুলতে। তাঁরা চেষ্টা করেছেন যাতে ইউপিএসসি একটি স্বাধীন ও স্বচ্ছ সংস্থা হিসেবে গড়ে উঠতে পারে। ইউপিএসসির সঙ্গে আমরা যদি ভারতীয় রাজ্যগুলির পাবলিক সার্ভিস কমিশনের তুলনা করি, তা হলে দেখব যে এটি কী পরিমাণ উন্নতি করেছে। রাজ্যের পিএসসিগুলিতে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে, রয়েছে স্বজন-পোষণের অভিযোগও। কিন্তু ইউপিএসসিতে এটি দ‍ুষ্প্রাপ্য।

 

ওই আইএএস আধিকারিক আরও জানান, অভিযোগ তোলা হয়েছে ইউপিএসসি ধর্মের ভিত্তিতে বৈষম্য করে। এটি চরম অবমাননাকর। আমাদের দেশে জনস্বাস্থ্যের সংকট রয়েছে, রয়েছে অর্থনৈতিক সংকট। কিন্তু ওই ভিডিয়োতে দেশের মানুষকে ভাগ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তিনি জানান, আমি যতটা বুঝেছি এই ঘটনাটি ভারতীয় আইনে ঘৃণা মন্তব্যের অধীনে পড়ছে। এক্ষেত্রে তিনি নিজের রাজ্য কেরলের একটি ঘটনা উল্লেখ করেন। বলেন, আমার এক মুসলিম কলিগ জেলাশাসক হিসেবে একটি খুবই স্পর্শকাতর ইস্যু দেখভাল করছিল যেটি জাতীয় নজর কাড়ে।


কিছু ঘৃণা প্রচারকারী তার নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে। কিন্তু জনগণ যেভাবে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিল তা খুবই উল্লেখযোগ্য ক্ষেত্রে। তারা জানিয়েছিল, এটা চলবে না। জেলার জনতাই তার পাশে দাঁড়িয়েছিল। তিনি একটি নিবন্ধে আরও জানান, সিভিল সার্ভেন্টরা দু’বছর কঠোর ট্রেনিংয়ের মধ্যে দিয়ে যান। কীভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে সে নিয়ে তাদেরকে সচেতন করা হয়। এখানে সবাই পেশাদারিত্ব মেনে চলে, সে মুসলিম হোক কিংবা অন্য সম্প্রদায়ের। কোনও ধর্মের ভিত্তিতে এখানে যোগ্যতা দেখা হয় না। তাই আমাদেরকে এই সময় যারা ভাগ করতে চাইছে তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only