বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ১০০টি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প পার্ক গড়ছে রাজ্য সরকার

 

 


পুবের কলম প্রতিবেদক : রাজ্যে বেকারদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে আরও এক বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় নতুন করে আরও ১০০টি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প পার্ক গড়ে তোলা হবে। বুধবার নবান্ন সভাঘরে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় সরকারি হাসপাতালগুলিতে ৬৪২ জন মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ করার সিদ্ধান্তও অনুমোদিত হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এ খবর জানিয়েছেন। 

নিবিড় কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে রাজ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প গড়ে তোলার ক্ষেত্রে গত কয়েক বছর ধরেই উৎঝসাহ দিয়ে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন করে ব্যবসা শুরু করার জন্য ২০১৪ সাল থেকে ইনসেনটিভ বা উত্রসাহভাতাও চালু করেছে রাজ্য সরকার। বর্তমানে রাজ্যে ১৩০০ একর জমির উপরে এমন ১৪টি শিল্প পার্ক গড়ে উঠেছে। এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকে ঠিক হয়েছে বিভিন্ন জেলায় আরও ১০০টি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প পার্ক গড়ে তোলা হবে। মূল রাস্তা থেকে শিল্প পার্ক পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তা তৈরি করে দেবে রাজ্য সরকার। বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য বিনামূল্যে পাওয়ার স্টেশনও তৈরি করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি জমি বাবদ যে স্ট্যাম্প ডিউটি বা রাজস্ব সরকারের প্রাপ্য তাও মকুব করা হবে। 

শিল্প পার্কগুলি গড়ার ক্ষেত্রে উৎজসাহ জোগাতে পাঁচ বছর ধরে বিশেষ উৎেসাহ ভাতা দেওয়া হবে। রাজ্য মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ একর থেকে ৩৯ একর পর্যন্ত ২ কোটি টাকা, ৪০ একর থেকে ৫৯ একর পর্যন্ত ৪ কোটি টাকা,৬০ একর থেকে ৭৯ একর পর্যন্ত ৬ কোটি টাকা ৮০ একর থেকে ১০০ একর পর্যন্ত ৮ কোটি টাকা ও ১০০ একরের উপরে ১০ কোটি টাকা ইনসেনটিভ দেওয়া হবে। 

মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন ‘কর্মসংস্থানের দরজা খোলার জন্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগে উৎসাহিত করতে ২০১৪ সালে ইনসেনটিভ বা উৎ্সাহ ভাতা চালু করেছিল রাজ্য সরকার। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। ফের পাঁচ বছরের জন্য ইনসেনটিভ পলিসির পুনর্নবীকরণ করা হয়েছে। এছাড়া শিল্প তালুকের মধ্যে কমন এফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট বা সিইপিটি তৈরি করা হলে– আরও পাঁচ লক্ষ টাকা অতিরিক্ত অনুদান হিসেবে দেবে রাজ্য সরকার।’

পাশাপাশি রাজ্যে করোনা মোকাবিলায় আরও ৬৪২ জন মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রিসভা। তার মধ্যে বর্তমানে বিভিন্ন হাসপাতালে ১৫৭টি পদ শূন্য রয়েছে। ৭৫টি সরকারি হাসপাতালে নতুন করে আরও ৪৮৫টি পদ তৈরি করা হচ্ছে বলে স্বরাষ্ট্র  সচিব জানিয়েছেন।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only