শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

শিক্ষা প্রসারে শিক্ষারত্ন করুণাময় স্যার



দেবশ্রী মজুমদার , ৩ সেপ্টেম্বর:  বাঁধন বগ্রামের মত প্রত্যন্ত এলাকায় শিক্ষা প্রসারে অবদানের জন্য শিক্ষা রত্ন পুরস্কার পেতে চলেছেন শিশুশিক্ষা কেন্দ্রের প্রধান শিক্ষক করুণাময় দাস। আগে ভালো মানুষ হতে হবে, এমন পথ চলা ছিল মানুষ গড়ার কারিগর করুনাময় বাবুর। তবে, মুখ্যমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার না পাওয়ার দুঃখ তাঁর থাকবে। করোনা আবহে এবার ভার্চুয়াল সভা থেকে গতকাল শিক্ষক দিবসে এই পুরস্কার দেওয়া হবে, বলে জানা গেছে। তিনি আবেদন রাখেন,  অভিভাবকদেরও সেই শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে হবে।


তাঁর এই প্রচেষ্টাই এবার তাঁকে এনে দিচ্ছে শিক্ষারত্ন সম্মান। শিশু শিক্ষার মধ্যে দিয়ে তাঁর পালাবদলের কাহিনী যাতে অনুপ্রাণিত করতে পারে অন্য শিক্ষকদেরও,সেটাই চাইছে রাজ্য সরকার।



বোলপুর শহরের কাছেই বাঁধনবগ্রাম।  সেই গ্রামকে সবাই চেনে বাঁধনবগ্রাম প্রাথমিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক করুণাময় দাসের নামে। রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের তরফে তাঁকে বেছে নেওয়া হয়েছে এবছর শিক্ষারত্ন সম্মানের জন্য।


গ্রামের মানুষের কাছেও খুবই পরিচিত তিনি। কারণ তাঁর খুদে পড়ুয়াদের নিয়ে নানা কার্যক্রম শুধু স্কুলের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে না। স্কুলের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থেকে পার্থেনিয়াম নিয়ে মানুষকে পড়ুয়াদের মাধ্যমে সচেতন করা, সবেতেই তিনি ডেকে নেন পড়ুয়াদের অভিভাবক থেকে গ্রামের পাঁচজনকে।



বাঁধনবগ্রামের খুদেরা যখন নির্মল বিদ্যালয়ের প্রচার চালিয়েছিল অভিনব কর্মসূচিতে। তাঁর কচিকাঁচার দল পৌঁছে গিয়েছিল গ্রামের মানুষের কাছে। পরিবেশকে বাঁচাতে পার্থেনিয়াম গাছ উপড়ে ফেলার অভিযানেও তারা  সাথে পেয়েছিল তাদের গ্রামের মানুষদেরকে। এই ব্যাপারে শিক্ষক করুণাময়ের গরজে ছিল বেশি।


 বিনয়ী শিক্ষক সব কৃতিত্ব দিচ্ছেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান প্রলয় নায়েককেই। প্রলয় নায়েক খুশি, এমন যোগ্য শিক্ষক সম্মানিত হওয়ায়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only