বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল প্রধানের , পালটা ভারতেরও



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ ইউনাইটেড নেশনস হিউম্যান রাইটস কাউন্সিল প্রধান জম্মু-কাশ্মীরের গণতান্ত্রিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করার একদিন পরই সমালোচনার জবাব দিল ভারত। মঙ্গলবার ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কাশ্মীরে প্রাথমিক স্তরের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা হয়েছে এবং সরকার অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে করোনা ভাইরাস অতিমারির চ্যালেঞ্জ ও নানা বৈদেশিক ষড়যন্ত্র থাকা সত্ত্বেও। 

ইউএনএইচআরসিতে ভারতের প্রতিনিধি ইন্দ্রমণি পাণ্ডে ইউএনএইচআরসি কমিশনার মিশেল ব্যাশলেটের কাশ্মীর মন্তব্য নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। পাণ্ডের দাবি দেশের অন্যান্য স্থানের জনগণ যেভাবে মৌলিক অধিকার ভোগ করছে ২০১৯-এর আগস্ট থেকে কাশ্মীরের মানুষেরাও সেটাই পাচ্ছেন। তিনি আরও বলেন আগস্টের পর অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে বারবার এবং অন্যান্য রাজ্যবাসীর মতোই এখানকার মানুষ মৌলিক অধিকার ভোগ করছে এখন। পাকিস্তানের নাম উল্লেখ না করে পাণ্ডে বলেন একটি দেশ বারবার কাশ্মীরে সন্ত্রাসী ঢুকিয়ে রেখে ওখানকার উন্নয়নের ধারাকে গতি রুদ্ধ করার চেষ্টা করছে। নারী,শিশু,সংখ্যালঘু এবং শরণার্থীদের জন্য কাশ্মীরে আর্থ-সামাজিক ন্যায় নিশ্চিত করার সর্বাত্মক চেষ্টা করছে এই সরকার। 

গত সোমবার ব্যাশলেট বিশ্বের মানবাধিকার সম্পর্কে এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন কাশ্মীরে পুলিশ ও মিলিটারি সাধারণ জনগণের উপর হিংসাত্মক ঘটনা ঘটাচ্ছে। পেলেট গান ছোড়া হচ্ছে এবং নানারকম অত্যাচার করা হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি আরও বলেন সংবিধান এবং ডোমিসাইল নীতি নতুনভাবে এখানে তৈরি করার চেষ্টা করা হচ্ছে যেটা খুবই উদ্বেগের বিষয়। রাজনৈতিক বিতর্কের পরিসর এবং রাজনীতিতে জনগণের অংশগ্রহণ নিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়েছে। এমনকী সেখানে ইন্টারনেটের ব্যবহার নিয়ন্ত্রিত এবং পর্যাপ্ত নয়। এর ফলে বিভিন্ন অনলাইন পরিষেবা এবং শিক্ষা গ্রহণে অসুবিধা সৃষ্টি হচ্ছে বলে রাষ্ট্রসংঘেরর মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থার ওই কমিশনার মন্তব্য করেন। তার মতে এটি মত প্রকাশের স্বাধীনতার অধিকার লংঘন করছে। অবশ্য তার এই মন্তব্য কোনওমতেই মানতে রাজি নয় মোদি সরকার। তাই পাণ্ডেকে দিয়ে তড়িঘড়ি পালটা বিবৃতি প্রদান করানো হয়েছে বলে মত ওয়াকিফহাল মহলের।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only