বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

১২ তারিখ লকডাউন প্রত্যাহার করল রাজ্য, প্রসঙ্গ নিট পরীক্ষার্থীদের স্বার্থ

 


কলকাতা, ১০ সেপ্টেম্বর: নিট পরীক্ষার্থীদের স্বার্থে শনিবারের লকডাউন প্রত্যাহার করে নিল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার ট্যুইটে এ কথা রাজ্যবাসীকে জানালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার নিট পরীক্ষা। ওইদিন এই পরীক্ষায় বসবেন রাজ্যের ৩৭ হাজার ছাত্রছাত্রী। তার আগে দুই দিন অর্থা‍ৎ ১১ তারিখ শুক্রবার ও ১২ তারিখ শনিবার রাজ্য জুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন হওয়ার কথা ছিল। এই কারণে বৃহস্পতিবার থেকেই অনেক ছাত্রছাত্রী শহরে আসতে শুরু করে দিয়েছিলেন। তবে এ দিন ট্যুইট করে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, শনিবারের লকডাউন তুলে নেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ট্যুইটে মমতা লিখেছেন, 'এর আগে ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর লকডাউন হবে বলে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ঘোষণা করেছিল। কিন্তু ১৩ সেপ্টেম্বর নিট পরীক্ষা রয়েছে । সে জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের থেকে প্রচুর আবেদন আর্জি আসছে যাতে পরীক্ষার আগের দিন লকডাউন তুলে নেওয়া হয়। মূলত সে কথা বিবেচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। তবে  ১১ তারিখ রাজ্য জুড়ে লকডাউন হবে।'

উল্লেখ্য, পরীক্ষার তিন দিন আগেই বৃহস্পতিবার শহরে চলে আসতে শুরু করে সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকার (নিট) অনেক পরীক্ষার্থী। রবিবার পরীক্ষা হলেও তার আগের দু'দিন শুক্র ও শনিবার রাজ্যে পূর্ণাঙ্গ লকডাউন ছিল। সে কারণেই রবিবার বাসে বাড়তি ভিড় যেমন হবে, তেমনই প্রাইভেট গাড়িও প্রচুর ভাড়া চাইবে, এমনই আশঙ্কা ছিল অনেক পরীক্ষার্থীর। সঙ্গে আসেন অভিভাবকরাও। আর তার ফলেই দীর্ঘ লক ডাউনের পর দরজা খুলে কিছুটা হলেও লক্ষ্মীলাভ হতে চলেছে শহরের ছোট হোটেল-গেস্ট হাউসগুলির।

সেক্টর ফাইভের মনোরমা গেস্ট হাউসে ইতোমধ্যেই ১২টি ঘর বুক হয়ে গিয়েছে। ম্যানেজার সমীর দত্ত জানান, 'ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষার সময় সব ঘর বুক হয়নি। এ বার কিন্তু হলো।' এ দিন অভিভাবকের সঙ্গে এই গেস্ট হাউসেই আসেন আসানসোলের আশুতোষ শীল। তাঁর বক্তব্য, ' টানা দু'দিন লকডাউন ছিল। পরীক্ষার দিন  যাতে অসুবিধায় পড়তে না হয়, তাই আগেভাগেই চলে এলাম। মুখ্যমন্ত্রীকে স্বাগত তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের অসুবিধার কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে আরও কিছুদিন আগে জানালে এভাবে তাড়াহুড়ো করে আসতে হতো না।' কল্যাণীর তনয় মুখোপাধ্যায়েরও সেন্টার পড়েছে সল্টলেকে। তাঁর কথায়, ট্রেন চললে সমস্যা হতো না, কিন্তু বাসে যাওয়া অসম্ভব। তাই দু'দিন আগে চলে এসেছি।' করুণাময়ীর পান্থনিবাস গেস্ট হাউসের ৮টি ঘরেই আজ পরীক্ষার্থীরা ঢুকে পড়েছেন। একই কারণে বুকিং সম্পূর্ণ বড় বাজার, ধর্মতলা বা শিয়ালদহের গেস্ট হাউস ও হোটেলগুলিও।

কলকাতা জোনে ৬৬টা সেন্টার। সেন্টার পিছু প্রায় ৭০০ পরীক্ষার্থী। নিট পরীক্ষার আগের দু'দিন পরীক্ষার্থী ও তাঁদের অভিভাবকদের বিনা মূল্যে থাকার ব্যবস্থা করেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য হজ কমিটি। কম খরচে থাকার সুযোগ করে দিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনও।তবে শনিবার লকডাউন উঠে জাওয়ায়শহর ও শহরতলির কাছে থাকা মানুষদের বাড়তি সুবিধা পাবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only