মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

নীরব মোদির প্রত্যর্পণ মামলার শুনানি শুরু লন্ডন আদালতে



পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃ হীরক কুবের নীরব মোদি প্রত্যর্পণ মামলার শুনানি শুরু হল সোমবার। পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক থেকে ১৩,৭০০ কোটি টাকা প্রতারণায় অভিযুক্ত নীরব এখন ব্রিটেনের ওয়ান্ডসওয়ার্থ জেলে। লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার আদালতে তার ৫ দিনের প্রত্যর্পণ মামলার শুনানি শুরু হয় এদিন। নীরবকে ভারতে ফেরাতে সিবিআই ও ইডি আগেও আবেদন করেছে। গতবছর মার্চ থেকে ব্রিটেনে থাকা নীরবের জন্য এর আগে ৫ বার জামিনের আবেদন খারিজ হয়। ৯ মার্চ ২০১৯ প্রকাশিত এক ভিডিয়োয় দেখা যায় ঢেঁকি যেমন স্বর্গে গেলেও ধান ভানে তেমনই লন্ডন থেকেও অবৈধ হীরের ব্যবসা চালাচ্ছে সে। তারপরই ওয়েস্টমিনস্টার আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। ভারতের আবেদনের ভিত্তিতে ১৯ মার্চ লন্ডনে গ্রেফতার হয়। 
ক’মাস আগে নীরব মোদি ও তার ভাগ্না মেহুল চোকসির প্রায় ১৩৫০ কোটি টাকা মূল্যের মণিমাণিক্য দেশে ফিরিয়ে আনে ইডি। ২৩৪০ কেজি ওজনের সেই মূল্যবান গয়নার মধ্যে হিরে মুক্তো সহ বহু দামি ধাতব ছিল। পিএনবি-র ১৩ হাজার ৭০০ কোটি টাকা জালিয়াতির দায়ে দেশ ছাড়ার আগে ২ হাজার ৩৪০ কেজি গয়না দুবাইয়ে পাচারের ছক কষেছিল মামা-ভাগ্নে। বিশেষ অভিযান চালিয়ে সেগুলো উদ্ধার করা হয় হংকং থেকে। 
অন্যদিকে আরেক ভারতীয় ধনকুবের বিজয় মালিয়ার বিরুদ্ধেও ১১,৩০০ কোটি টাকা ঋণ খিলাফের অভিযোগ রয়েছে। আবার নীরব মোদি মামলায় ইডি-র প্রধান তদন্তকারী অফিসার সত্যব্রত কুমারকে আচমকা সরিয়ে দেওয়া এবং তারপর বাধ্য হয়ে পুনর্বহালের নির্দেশ ঘিরে নাটকীয় পটপরিবর্তন ঘটে। গতবছর ২৯ মার্চ ওয়েস্টমিনস্টার আদালতে নীরবের জামিনের আর্জির প্রথম শুনানি শুরুর ঠিক আগেই বদলি করা হয় ইডি-র জয়েন্ট ডিরেক্টর সত্যব্রত কুমারকে। তারপর দেশজুড়ে তীব্র বিতর্ক দেখা দিলে তড়িঘড়ি সত্যব্রতকে দায়িত্বে ফেরায় মোদি সরকার। উল্লেখ্যে যে এর আগে যতবার নীরব মামলা লন্ডন আদালতে উঠেছে, তখন ব্রিটেনের  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   ছিলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভ(ত সাজিদ জাভেদ। আর এখন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভুত প্রীতি প্যাটেল। তাই এবার ওয়েস্টমিনস্টার আদালতের দিকে তাকিয়ে রয়েছে সবাই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only