বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সামগ্রিক উন্নয়নের দাবিতে বিক্ষোভ আদিবাসীদের বীরভূমে



কৌশিক সালুই, বীরভূম ,৯ সেপ্টেম্বর:"পুলিশি জুলুম বন্ধ করতে হবে, উচ্ছেদ করে ডেউচা পাচামি কয়লা খনি করা যাবে না এবং আদিবাসী ও আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকার মানোন্নয়ন করতে হবে"। প্রভৃতি ১৬ দফা দাবি নিয়ে বুধবার বীরভূমের মহম্মদ বাজার থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদান করলো বীরভূম জেলা আদিবাসী উন্নয়ন গাঁওতা।
       আদিবাসী সমাজের একগুচ্ছ দাবি নিয়ে পথে নামলেন বীরভূম জেলা আদিবাসী উন্নয়ন গাওতার সদস্যরা। এদিন মহম্মদ বাজার  থানায় তারা বিক্ষোভ কর্মসূচি করেন ও ১৬ দফা দাবি নিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেন। আদিবাসীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে, ওই সমাজের মহিলাদের উপযুক্ত নিরাপত্তা দিতে হবে, ইতিমধ্যেই পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ কয়লা শিল্পাঞ্চল হিসেবে ডেউচা পাচামি কোল ব্লকের প্রশাসনিক কাজকর্ম শুরু হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যসচিব সম্প্রতি ডেউচাতে স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। প্রস্তাবিত এলাকায় একটি বৃহৎ অংশ আদিবাসী মানুষের বসবাস। আন্দোলনকারীদের দাবি সেই সমস্ত মানুষকে বঞ্চিত করে খোলামুখ কয়লা খনি করা যাবে না। প্রশাসনকে সরাসরি আলোচনায় বসতে হবে। এলাকার আদিবাসি-মানুষের মানোন্নয়ন করতে হবে।


 আদিবাসী ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিক সহায়তা, স্থানীয় গিরিজোর সাঁওতালি উচ্চ বিদ্যালয়ে সাঁওতালি ভাষায় পঠন-পাঠনের ব্যবস্থা এবং ঐ সমস্ত আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় রাস্তাঘাটসহ পরিকাঠামো উন্নয়ন এর ব্যবস্থা করতে হবে। এই দাবিগুলি নিয়ে প্রায় ২০০০ আদিবাসী মানুষজন মহম্মদ বাজার  থানায় উপস্থিত হয়েছিলেন। বীরভূম জেলা আদিবাসী উন্নয়ন গাঁওতা সম্পাদক সুনীল সোরেন বলেন," বঞ্চিত আদিবাসীদের শিক্ষা আর্থিক ও সামাজিক নিরাপত্তা এবং এলাকার মানোন্নয়নের দাবি নিয়ে আমরা প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়ে ছিলাম। প্রশাসন আমাদের দাবি বিবেচনা করার আশ্বাস দিয়েছে"।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only