বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

উইঘুর নিধনের বিরুদ্ধে সরব ১৩০ ব্রিটিশ সাংসদ, নিন্দা জানিয়ে চিঠি চিনা রাষ্ট্রদূতকে



পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃ উইঘুরদের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধনযজ্ঞ চালাচ্ছে চিন। দিনের পর দিন ধরে চিনের শিনজিয়াং প্রদেশের এই সংখ্যালঘু  সম্প্রদায়ের ওপর অত্যাচারের মাত্রা বেড়েই চলেছে। এরই বিরুদ্ধে সরব হলেন ব্রিটেনের সাংসদরা। উইঘুরদের পাশে দাঁড়িয়ে ১৩০ জন ব্রিটিশ সাংসদ চিঠি লিখে পাঠিয়েছেন ব্রিটেনে নিযুক্ত চিনা রাষ্টÉদূত লিউ শিয়াওমিংকে। এই চিঠিতে উইঘুর বিরোধী কর্মকাণ্ড চালানোর জন্য চিন সরকারের সমালোচনা ও নিন্দা জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার ব্রিটেনের হাউস অব কমন্স এবং হাউস অফ লর্ডসের সদস্যরা যে চিঠি লিূেছেন তাতে বলা হয়েছে  চিন সরকারকে সব কিছু খুলে বলতে হবে। উইঘুরদের বিরুদ্ধে চিন যা করছে তাকে জাতিগত শুদ্ধিকরণের সুকৌশলী ও পূর্বনির্ধারিত পরিকল্পনা হিসাবে উল্ল্যেখ করা হয়েছে। তবে এই প্রথম নই  চিনকে সতর্ক করে এর আগেও একবার চিঠি লিখেছিলেন  ব্রিটিশ সাংসদরা। উল্লেখ্যযে শিনজিয়াংয়ে ১০ লক্ষেরও বেশি উইঘুর মুসলিমকে শিক্ষা দেওয়ার নামে বন্দি শিবিরে জোর করে আটকে রেখেছে চিন। সেখানে  মুসলিমদের সঙ্গে পশুর মতো ব্যবহার করা হচ্ছে। তাদের ধর্মীয় আবেগে আঘাত হানতে কেড়ে নেওয়া হচ্ছে পবিত্র কুরআন। জোর করে তাদের মুখে  ঢেলে দেওয়া হচ্ছে হারাম অ্যালকোহল। এসব অভিযোগকে অবশ্য কখনও  মেনে নেয়নি চিন সরকার। মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের হাতে যেসব তথ্য বা প্রমাণ রয়েছে সেগুলিকেও নাকচ করেছে বেজিং। 



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only