রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ধান কোথায় উৎপাদন হয় জানেন কী?


 
বিশেষ প্রতিবেদকঃ কাদা,মাটি,জল,উপযুক্ত আবহাওয়া এসবই ধান চাষের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কৃষকরা নিপুন হাতে ধানের চারা রোপন করেন। এরপর কয়েক মাস লেগে যায় হাতে ফসল পেতে। তবে সউদি আরবেরও মতো বালুকাময় মরু দেশেও যে ধান উৎপাদন হয় তা শুনে অবাক হতেই হয়। সউদি আরবের পূর্বাঞ্চল আল আহসা হাসাভি নামের লাল চালের জন্য পরিচিত। আর সবথেকে চমকপ্রদ বিষয়টি হল এই ধানটিই বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ধান। আল-আহসার কৃষকরা প্রতি বছর গ্রীষ্মের পরে বিশেষ করে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাস ধানের চারা রোপন করেন। এর আগে তারা মাটি প্রস্তুত করতে শুরু করেন। বিশ্বের বিরল এই লাল চালের ধানের জাতটি বর্তমানে জলের অভাবে বিলুপ্তির ঝুঁকিতে রয়েছে। তার কারণ ভালো পরিমাণে জল ছাড়া এই ধানের চাষ সম্ভব নয়। এই ধানের চারা রোপন করতে হয় অতিরিক্ত জলে। সপ্তাহে পাঁচদিন হাসাভি ধানের গাছে জল দিতে হয়। যদিও এর শেকড় দীর্ঘ সময় জল ধরে রাূতে পারে। শর্করা প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ এই লাল চাল পুষ্টিগুণে ভরা। বাত এবং হাড়ের অসুূ নিরাময়ে দারুন কার্যকরী হাসাভি ধান। এি প্রজাতির ধান সাধারণত গরম অঞ্চলে জন্মায়। এটি চাষে সর্বোচ্চ ৪৮ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার প্রয়োজন পড়ে। তাপমাত্রা কম হলে এই ধানের বৃদ্ধিতে প্রভাব পড়ে এবং তা সম্পূর্ণ বেড়ে উঠতে পারে না। সউদি কৃষক আবদুল হাদি আল সালমান বলেন ‘আমরা এই চাল উৎপাদন করি, নিজেরাও খাও এবং অন্যদের খাওয়াই। কিছুটা বিক্রিও করি। এগুলো আমাদের কাছে সোনার ফসল।’


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only