বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

পালঘরকাণ্ড নিয়ে নোটিশ অর্ণবকে



পুবের কলম, মুম্বইঃ টিআরপি দুর্নীতির অভিযোগের পর এবার প্ররোচনামূলক অনুষ্ঠান সঞ্চালনা। এবার নোটিশ পাঠানো হল রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামীকে। মুম্বই পুলিশের পক্ষ থেকে তাঁকে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে। মহারাষ্ট্রের পালঘরে সাধু হত্যার ঘটনা নিয়ে টিভি অনুষ্ঠানে উসকানিমূলক মন্তব্য করার অভিযোগ তোলা হয়েছে অর্ণবের বিরুদ্ধে। টিআরপি দুর্নীতি নিয়ে আগেই রিপাবলিক টিভির একাধিক আধিকারিককে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আর এবার পালঘর সাধু হত্যার ঘটনা নিয়ে নোটিশ পাঠানো হল খোদ অর্ণবকে। যদিও সূত্রের খবর, টিআরপি দুর্নীতি নিয়েও অর্ণবকে নোটিশ পাঠানোর কথা ভাবছে মুম্বই পুলিশ।


কিন্তু তার আগেই অবশ্য পালঘর-কাণ্ড নিয়ে অর্ণবকে নোটিশ পাঠানোর ঘটনা ঘটল। এবার পালঘর সাধু হত্যা এবং বান্দ্রার পরিযায়ী শ্রমিক বিক্ষোভ মামলায় রিপাবলিক টিভির কর্তাকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে মুম্বই পুলিশের তরফে। মুম্বই পুলিশের সহকারি কমিশনার সুধীর জাম্বাভদেকর অর্ণবকে শোকজ বা কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছেন। পুলিশের অভিযোগ, রিপাবলিক টিভির সম্পাদক পালঘর সাধু হত্যা এবং বান্দ্রার পরিযায়ী শ্রমিক বিক্ষোভ ইস্যুতে উসকানিমূলক খবর সম্প্রচার করেছেন। আগামী ১৬ অক্টোবরের মধ্যে অর্ণবকে মুম্বই পুলিশের কাছে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। 


উল্লেখ্য, পালঘর সাধু হত্যার ঘটনা নিয়ে রিপাবলিক টিভির একটি লাইভ শো’তে অর্ণবের করা একটি মন্তব্য বিতর্ক তৈরি করেছিল। সেখানে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ইতালি থেকে আসা সোনিয়া গান্ধি ইতালিয়ানদের নির্দেশে ভারতে পরিকল্পিতভাবে হিন্দুদের উপর হামলা করাচ্ছেন। ইতালিতে নিজের ‘কর্তা’দের খ‍ুশি করতেই পালঘরের ঘটনা নিয়ে তিনি নীরব। অর্ণবের এই মন্তব্য ঘিরেই তৈরি হয় বিতর্ক। কংগ্রেসের অভিযোগ, অর্ণবের এই মন্তব্যে পুরোদস্তুর সাম্প্রদায়িক উসকানি ছিল। দেশজুড়ে রিপাবলিক টিভির সম্পদকের বিরুদ্ধে শতাধিক মামলা হয়। 


যদিও আদালত অর্ণবের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলাগুলি খারিজ করে দেয়। সেই বিতর্কের অবসান ঘটার পরপরই টিআরপি কেলেঙ্কারির অভিযোগ ওঠে রিপাবলিক টিভির বিরুদ্ধে। মুম্বই পুলিশের অভিযোগ, টাকা দিয়ে টিআরপি কিনছে অর্ণবের চ্যানেল। সেই বিতর্কের মধ্যেই নতুনকরে অর্ণবকে পালঘর এবং বান্দ্রা মামলায় নোটিশ পাঠাল মুম্বই পুলিশ। মুম্বই পুলিশের দাবি, পালঘর মামলায় নিজের বক্তব্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করেছেন অর্ণব। আর বান্দ্রা স্টেশনে পরিযায়ীদের জমায়েত মামলায় তিনি দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে বিদ্বেষ তৈরির চেষ্টা করেছিলেন। প্রচার করা হচ্ছিল, এই করোনা কালেও একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের পরিযায়ী শ্রমিকরা বান্দ্রায় জড়ো হয়েছে। করোনা ছড়ানোর অসৎ অভিসন্ধি নিয়ে তারা এ কাজ করেছিল। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only