শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

উত্তর প্রদেশের হাথরাস কাণ্ডের ঘটনায় বনগাঁয় তৃণমূলের বিক্ষোভ, অবস্থান



এম এ হাকিম, বনগাঁ :   উত্তর প্রদেশের হাথরাস কাণ্ডের ঘটনায় উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বনগাঁয় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিল ও ধর্না-অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে বনগাঁর জয়ন্তিপুর বাজারে জেলা তৃণমূলের কোর্ডিনেটর গোপাল শেঠের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলে এলাকার বহু মানুষজন অংশগ্রহণ করেন। পরে তাঁরা রাস্তার ওপরে বসে কিছু সময়ের জন্য পথ অবরোধ ও ধর্না-অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।  

 

জেলা তৃণমূলের কোর্ডিনেটর গোপাল শেঠ বলেন, ‘বিজেপি শাসিত উত্তর প্রদেশের হাথরাসে আমাদের এক দলিত বোনকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ তার মৃতদেহকে কাউকে না জানিয়ে গোপনে পুড়িয়ে দিয়েছে। বিজেপি শাসিত অন্য রাজ্যেও দলিত, আদিবাসীরা অত্যাচারিত ধর্ষণের শিকার হচ্ছেন। অবিলম্বে অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে দৃষ্টান্তমূলক সাজা দিতে হবে। অবিলম্বে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে তাঁর পদ থেকে অপসারণ করতে হবে। সারা রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ওই ইস্যুতে আন্দোলন হচ্ছে।’   



তিনি বলেন, ‘উত্তর প্রদেশের ওই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে তৃণমূল এমপিদের হেনস্থা ও নিগ্রহ করা হয়েছে। ডেরেক ও’ ব্রায়েন, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, মমতা ঠাকুর, প্রতিমা মণ্ডলদের সঙ্গে উত্তর প্রদেশ পুলিশ দুর্ব্যবহার করেছে। ডেরেক ও’ ব্রায়েনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলা দেওয়া হয়। আমরা ওই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’ 


বিজেপি কৃষকদের অধিকার কেড়ে নিচ্ছে, তাঁদেরকে শোষণ করার পরিকল্পনা করেছে। এসবের বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। এজন্য  দেশ থেকে বিজেপিকে বিদায় দিতে হবে বলেও তৃণমূল নেতা গোপাল শেঠ মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only