শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০২০

সেনা-সেবা বাহিনীর শীর্ষপদে বাঙালি কন্যা



আসানসোল, ৯ অক্টোবরঃ ভারতীয় সেনা বাহিনীর মিলিটারি নার্সিং সার্ভিসের অ্যাডিশনাল জেনারেল হলেন একজন বাঙালি কন্যা।  সাহস আর শিক্ষাকে সম্বল করেই নার্সিংক্ষেত্রে সেনাবাহিনীর সর্বোচ্চ অ্যাডিশনাল জেনারেল পদে স্থান করে নিলেন চিত্তরঞ্জন রেল-শহরের মেয়ে সোনালি ঘোষাল। 


গত ১ অক্টোবর তিনি এই পদে স্থলাভিষিক্ত হন। এর আগে মেজর জেনারেল সোনালী ঘোষাল ছিলেন দিল্লি ক্যানন্টমেন্ট আর্মি হাসপাতালের প্রিন্সিপ্যাল মেট্রন। তারই পরিচর্যায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন অপারেশন ব্ল‍ুস্টার এবং অপারেশন সদভাবনায় অংশগ্রহণকারী আহত সেনারা। 


বাবা চিত্তরঞ্জন ঘোষাল চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভের কর্মী। তাঁর দুই মেয়ে শুভ্রা ও সোনালি দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী। সেই স্কুলেই শুভ্রা এখন বিজ্ঞানের শিক্ষিকা। তাঁর এই সাফল্যে গর্বিত তাঁর শিক্ষক মৈত্রেয়ী মজুমদার। তিনি বলেন, ‘এক সময় ওকে আমি পড়িয়েছি এই ভেবে আমি গর্ব অনুভব করছি। র*পনারায়ণপুর ও চিত্তরঞ্জনের বাসিন্দাদের মতো আমিও আনন্দিত।’


১৯৭৭ সালে মাধ্যমিক পাশ করেন সোনালিদেবী। একাদশে পড়ার সময়ই মাত্র ১৭ বছর বয়সে তিনি সেনা বিভাগের মিলিটারি নার্সিং ট্রেনিংয়ের ইন্টারভিউয়ে ডাক পান। কিন্তু ঝড়-জলের কারণে সেবার তিনি পৌঁছতে পারেননি। কারণ দেূিয়ে তিনি কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেন। তাঁর চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে অন্য একদিন কর্তৃপক্ষ তাঁর ইন্টারভিউয়ের ব্যবস্থা করেন। 


পরীক্ষায় সফল হয়ে তিনি সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। ১৯৮২ সালে সেকেন্দ্রাবাদ হাসপাতালে ইন্টার্নশিপ করেন তিনি। ১৯৮৩ সালে পাকাপাকিভাবে ফিরোজপুর ক্যান্টনমেন্টে লেফটেন্যান্ট পদে যোগ দেন। পরে পদোন্নতি হয়ে ক্যাপ্টেন, মেজর, লেফটেন্যান্ট কর্নেল এবং মেজর জেনারেল পদে অভিষিক্ত হন। ২০১৪ সালে চিফ অফ আর্মি স্টাফ কমেন্ডেশন কার্ডে সম্মানিত করা হয় তাঁকে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only