শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

দেশে স্বৈরতন্ত্র চলছে, দলিত-সংখ্যালঘুদের উপরে অত্যাচার হচ্ছে : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  বলেছেন, দেশে দলিত সম্প্রদায় ও সংখ্যালঘুদের উপরে অত্যাচার হচ্ছে। কৃষক সম্প্রদায়ের মুখের গ্রাস কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। তিনি আজ শনিবার বিকেলে কলকাতায় বিজেপি শাসিত উত্তর প্রদেশের হাথরাস কাণ্ডের ঘটনার প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময়ে ওই মন্তব্য করেন।


মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কোভিডের সঙ্গে লড়ার জন্য প্রস্তুত আছি। কোভিড-১৯-এর সঙ্গে লড়াই করে বেঁচে আছি। বিজেপি তোমার বন্দুককে আমরা ভয় পাই না। তোমাদের গুণ্ডামিকেও আমরা ভয় পাই না।’


উত্তর প্রদেশের হাথরাসে সম্প্রতি এক দলিত তরুণীকে ধর্ষণ করে হত্যার ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। সেই ঘটনার কথা উল্লেখ করে মমতা আজ বলেন, ‘একটা মেয়ের উপের অত্যাচার হয়েছে। অপরাধমূলক কাজকর্ম অনেক জায়গায় হয়। অপরাধমূলক ঘটনা যেখানেই হোক না কেন  আমরা তার নিন্দা জানাই। কোনও ক্রাইম হলে পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে, সঙ্গে বিচার হবে মানুষ এটা আশা করে। কিনি কী দেখলাম আমরা? অত্যাচার করবার পরেও বাড়ির লোকেদের আটকে রেখে, তাদের কাছে লাশ না দিয়ে রাতের অন্ধকারে মোদি সরকার, বিশেষ করে যোগী সরকার, তারা ওই লাশকে জ্বালিয়ে দিল! কতদিন চলবে এ জিনিষ? আজ যদি উত্তর প্রদেশের বুকে ওই ঘটনা হয়, সারা জায়গায় তা চলছে।’


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি দাঙ্গার ঘটনার উল্লেখ করে বলেন, ‘দিল্লিতে কত লোকের মৃত্যু হয়েছিল? তার ডেডবডিগুলো সমস্ত জলাশয়ে পড়ে ছিল। কেউ জানে ক’জন মারা গেছে? আজ পর্যন্ত কেউ তা জানে না। আমরা কিছু বলতে গেলেই বলবে, আরে উনি তো মুসলিমদের তোষণ করছেন! আমি বলি বিজেপি’র লোকেদের যখন মুসলিম বিপদে পড়ে আমি তাদের পাশে দাড়াই। আজ তপশিলীরা বিপদে পড়েছে, আমার দলিত ভাইবোনেদের পাশে আমরা সবাই দাঁড়িয়েছি। আদিবাসীরা বিপদে পড়লে সেদিন আমি আদিবাসী, দলিতরা বিপদে পড়েছে আজ আমি দলিত। মনে রাখবেন আমার একটাই কাস্ট সেটা হল ‘মানবিকতা’। হিন্দুরা বিপদে পড়লে কই তখন তো কেউ জিজ্ঞেস করো না মমতা তোমার পদবী কী? অন্য কেউ বিপদে পড়লে পদবী জিজ্ঞেস করতে আসো! কে তোমরা যে সবাইকে প্রমাণপত্র দেবে সবার পদবী নিয়ে খেলা করবে? মানুষের উপরে অত্যাচার করবে।’ 


বিজেপিকে টার্গেট করে তিনি বলেন, দিল্লিতে দাঙ্গায়, উত্তর প্রদেশে এনকাউন্টারে, কর্ণাটকে, হরিয়ানা, অসমে মানুষ মেরেছে কোনও বিচার কেউ পেয়েছে? বিচার কেউ পায়নি। বিচারের বাণী নীরবে নিভৃতে কাঁদছে। 


মমতা আজ কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়ে বলেন, ভারত প্রেসিডেন্সিয়াল সরকারের দিকে যাচ্ছে। দেশে সুপার একনায়কতন্ত্র চলছে। ভারতে কোনও গণতন্ত্র নেই। আমি স্পষ্টভাবে তা  বলতে চাই। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই, বেসরকারি সংস্থার স্বাধীনতা নেই। কোনও রাজনৈতিক দল কথা বলতে পারছে না। কোনও আধিকারিক কথা বলতে পারেন না। এজেন্সি’র রাজত্ব চলছে। এটা স্বৈরতান্ত্রিক সরকার। মানুষের জীবনের কোনও নিরাপত্তা নেই বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only