বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০

বিহারের ছবি বাংলার বলে চালাতে গিয়ে ধরা পড়লেন দিলীপ



পুবের কলম প্রতিবেদক­‌: কথায় বলে, ‘চুরি বিদ্যা মহাবিদ্যা, যদি না পড়ে ধরা।’ অবশ্য ধরা পড়লেও ‘লাজ-লজ্জাহীন’ বিজেপি নেতারা খুব একটা শোধরান না। যেমন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মোদি সরকারের ‘সর্বনাশা’ কৃষি বিল নিয়ে যখন রাজ্যের কৃষকরা বিরোধিতায় সরব, ঠিক তখনই মঙ্গলবার রাতে নিজের ট‍ুইটার হ্যান্ডেলে বিহারের একটি পুরনো ছবিকে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুরের ছবি বলে চালাতে গিয়ে হাতেনাতে পাকড়াও হয়েছেন। 


বঙ্গ বিজেপির এমন ‘নির্লজ্জ’ মিথ্যাচারের পর্দাফাঁস করেছে সর্বভারতীয় ওয়েবসাইট ‘অল্টনিউজ’। তবে দিলীপ নিজের ভুলকে স্বীকার করতে চাননি। বরং বুধবার এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে গিয়েছেন। কিন্তু প্রশ্নের মুখে পড়েছে তাঁর বিশ্বাসযোগ্যতা। সেইসঙ্গে দিলীপের সামাজিক মাধ্যম পরিচালনার দায়িত্বে থাকা মিডিয়া সেলের কর্মীদের ভূমিকা আতশকাঁচের নিচে। ‘সর্বনাশা’ কৃষি বিল নিয়ে গোটা দেশেই বিপাকে মোদি সরকার। দেশের অন্নদাতাদের ক্ষোভের আগুনে ফুঁসছে গোটা দেশ। কৃষি বিলের বিরুদ্ধে বাংলায় পথে নেমেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসও।


বাস্তবতাকে অস্বীকার করে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের গুডবুকে থাকার জন্য মঙ্গলবার রাতে একটি কৃষি জমির ছবি নিজের ট‍ুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি। রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কর্দমাক্ত এক জমিতে সবুজ ধান গাছের চারা দিয়ে সুন্দর করে ‘বিজেপি’ ও ‘মোদি’ লেখা রয়েছে। দিলীপের দাবি, ছবিটি দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ বিধানসভার পুনতোরের। গ্রামের চাষিরা মোদি সরকারের কৃষি বিলের সমর্থনেই এমন অভিনব কাজ করেছেন। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only