বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

১৪ দিনের সন্তানকে কোলে নিয়েই কাজে যোগ আইএএসের

 


গাজিয়াবাদ, ১৪ অক্টোবরঃ দেবী নয়। তবে তিনি সামান্যা নারীও নন। কেন বলছি জানেন? করোনা আবহে জন্ম দিয়েছিলেন শিশু সন্তানের। ১৪ দিনের ছোট্ট সেই শিশুসন্তানকে নিয়েই গাজিয়াবাদের মোদিনগরেরর আইএএস অফিসার সৌম্যা পান্ডে যোগ দিলেন কাজে। কাজের দায়িত্ব প্রায় পাহাড়প্রমাণ। মা হিসাবেও দায়িত্ব কিছু কম নয়। তাই কোনও দায়িত্বেই  ফাঁকি দিতে রাজি নন সৌম্যা। তাই ছোট্ট সন্তানকে কোলে নিয়েই হাজির দফতরে। সন্তানকে কোলে নিয়ে সৌম্যার কাজ করার একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। তার পরেই সামনে আসে, ২০১৭ ব্যাচের তরুণী অফিসার ২৬ বছরের সৌম্যার কর্তব্যপরায়ণতার কথা।


ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সৌম্যা তাঁর দুধের শিশুকে কোলে নিয়ে সরকারি অফিসে কাজ করছেন। এমনিতেই যেখানে দেশের সরকারি কর্মীদের বিরুদ্ধে হাজার অভিযোগের শেষ নেই, সেখানে সৌম্যার এই ছবি যেন অন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল। দেশের মানুষের প্রতি দায়বদ্ধতাতেও কোনও ফাঁক রাখা চলবে না বলেই মনে করেন সৌম্যা।


সংবাদসংস্থা এএনআইকে সৌম্যা বলেন, আমি একজন আইএএস অফিসার। নিজের দায়িত্ব আমাকে পালন করতেই হবে। কোভিড আবহে সবার ওপরে দায়িত্ব। ঈশ্বর মহিলাদের সন্তান জন্ম দেওয়ার ও তাদের যb নেওয়ার শক্তি দিয়েছেন। গ্রামাঞ্চলের মহিলারাও অন্তঃসত্ত্বাকালীন অবস্থায় জীবিকা সংক্রান্ত ও পরিবারের সমস্ত কাজ করেন। সন্তানের দায়িত্ব যেমন পালন করেন, তেমনই পরিবারের দায়িত্বও পালন করেন তারা। তেমনই ঈশ্বরের আশীর্বাদে আমিও ছোট্ট মেয়েকে নিয়েও প্রশাসনিক কাজে যোগ দিয়েছি।’ 


তিনি আরও বলেন, পরিবারও তাঁকে খুব সমর্থন করেছে। পাশাপাশি গাজিয়াবাদ প্রশাসনও তাঁকে সবরকমভাবে সাহায্য করেছে। কর্তব্যের পাশাপাশি বাচ্চা ও নিজের নিরাপত্তার কথা ভোলেননি তিনি। গর্ভবতী মহিলাদের উদ্দেশ্যে সৌম্যা বলেন, করোনাকালে সমস্ত কর্মরতা মহিলাদের উচিত সাবধানতা অবলম্বন করা। বছর দু’য়েক আগের কথা। সদ্যোজাত সন্তানকে নিয়ে পার্লামেন্টের যোগ দিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডেন। অধিবেশনের মাঝেই স্তন্যপানও করিয়েছিলেন তাকে। সে সময়ে ভাইরাল হয়েছিল ছবিটি। এবার একই নজির রাখলেন সৌম্যাও। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only