শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

মফিজন বিবি ওয়াকফ সম্পত্তি নিজের মতো ব্যবহার করছে মোতাওয়াল্লি, ব্যবস্থা নেবে বোর্ড



আবদুল ওদুদ 

মুর্শিদাবাদ জেলার রঘুনাথগঞ্জের শ্রীকান্তবাটীতে ওয়াকফ সম্পত্তি অনিয়মের অভিযোগ তুললেন রাজ্য ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি আবদুল গণি। গত বুধবার তিনি ওই ওয়াকফ সম্পত্তিটি পরিদর্শন করেন। শুক্রবার তিনি কলকাতায় জানায়, শ্রীকান্তবাটীতে একটি ওয়াকফ সম্পত্তি রয়েছে। তার ইসি নম্বর ১৫১৯৯। প্রায় তিন বিঘা জমি রয়েছে এখানে। মোতাওয়াল্লি রয়েছেন, মেহেদি হাসান। তার নামে আগে থেকেই নানা অভিযোগ আসায় গত বুধবার চেয়ারম্যান ওই সম্পত্তি পরিদর্শন করেন। চেয়ারম্যান সেখানে উপস্থিত হলেও মেহেদি হাসানকে জানানো হলে চেয়ারম্যানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেননি। 


চেয়ারম্যান বলেন সবমিলিয়ে তিন বিঘা সম্পত্তি রয়েছে। অত্যন্ত মূল্যবান সম্পত্তি সেখানে কয়েকটি দোকান ও রয়েছে কিছু অংশ পড়ে রয়েছে। মোতাওয়াল্লির বিরুদ্ধে অভিযোগ, এই সম্পত্তি থেকে আয় করার কোনও ভাবনা নেই তারা। বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অর্থ নিয়ে নিজের মতো আয় করছে। ফলে সরকারিভাবে কোনও প্রমাণ থাকছে না, ফলে ওয়াকফ বোর্ড মফিজন বিবি ওয়াকফ এস্টেট থেকে কোনও আয় পাচ্ছে না। চেয়ারম্যান বলেন, মোতাওয়াল্লিকে শোকজ করা হতে পারে। ওই মোতাওয়াল্লির কাছ থেকে লিূিত চাওয়া হয়েছে তার পরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 


আবদুল গণি বলেন, শ্রীকান্তবাটী রঘুনাথগঞ্জ এলাকার অত্যন্ত ব্যস্ততম এলাকা। তিন বিঘা সম্পত্তি থেকে অনেক কিছুই করা যেতে পারে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে দোকান। তিনি বলেন, একটি সাইন বোর্ডও ঝোলানো রয়েছে। কিন্তু কেন এই মোতাওয়াল্লি মফিজন বিবি ওয়াকফ এস্টেটের উন্নয়ন চাইছেন না, তা নিয়ে তদন্ত শুরু হবে। চেয়ারম্যান বলেন, মফিজন বিবি ওয়াকফ এস্টেটের মোতাওয়াল্লি রাজ্য ওয়াকফ বোর্ডকে কোনও প্রপোজাল পাঠালে সেটি বিবেচনা করা যেতে পারে। কিন্তু ওই মোতাওয়াল্লি কোনও কিছু না করে নিজের মতো সম্পত্তিটি ব্যবহার করছে। ফলে ওয়াকফ বোর্ড ওই মূল্যবান সম্পত্তির আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। 


  1. আমাদের আমডাঙা থানা উত্তর ২৪ পরগণা জেলার জিরাট গ্রামে একি সমস্যা

    উত্তর দিনমুছুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only