শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

সুশান্ত সিং আত্মহত্যাই করেছেন‌: এইমস রিপোর্ট



নয়াদিল্লি, ৩ অক্টোবরঃ সুশান্ত সিং রাজপুত মামলার তদন্তকারী এইমসের ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের সম্পূর্ণ রিপোর্টআজ প্রকাশিত হয়েছে। এইমসের ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের প্রধান ডাক্তার সুধীর গুপ্তা জানান, সুশান্ত সিংকে গলা টিপে হত্যার যে অভিযোগ উঠেছে তদন্তে তার কোনও প্রমাণ মেলেনি। ফরেনসিক প্রধান সুধীর গুপ্তা জানান, ‘আমরা আমাদের অন্তিম এবং পূর্ণ তদন্ত শেষ করেছি। তাতে পরিষ্কার সুশান্ত সিং রাজপুত গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যাই করেছেন। কারণ, সুশান্তের গলায় ফাঁসের ছাড়া শরীরে আর কোনও ক্ষতই ছিল না। মৃতের পোশাকেও ধস্তাধস্তির কোনও চিহ্ন মেলেনি।’ 


এইমসের ৭ ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ সিবিআইয়ের সঙ্গে সুশান্তের মৃত্য‍ুর ব্যাপারে আলোচনা করেন। সুধীর গুপ্তা বলেন, ‘সুশান্তের শরীরে বম্বে ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাব বা এইমসের টক্সিকোলোজি ল্যাবও কোনওরকম মাদক বা বিষাক্ত পদার্থের খোঁজ পায়নি। গলায় ফাঁসির দাগেই স্পষ্ট ফাঁস লেগেই সুশান্তের মৃত্য‍ু হয়েছে। এখনও মামলাটি যেহেতু বিচারাধীন তাই ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা তদন্তের সম্পূর্ণ রিপোর্ট দিতে অস্বীকার করেন। 



অন্যদিকে, সুশান্তের বন্ধু-পরিজনরা সিবিআইয়ের তদন্তের ঢিলেমি নিয়ে হতাশ। তাঁদের দাবি, সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে আত্মহত্যা নয় খ‍ুনের  দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করতে হবে। সুশান্তের পারিবারিক উকিলও তদন্তের গতি-প্রকৃতি নিয়ে একেবারেই সন্তুষ্ট নন। এই মামলার তদন্ত নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরোও করছে। ব্যুরোই ড্রাগ পাচার মামলায় রিয়া চক্রবর্তী, সৌভিক চক্রবর্তী, স্যামুয়েল মিরান্ডা এবং দীপেশ সাওয়ান্ত সহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only