বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

৩৭০ ধারা ফেরানোর আন্দোলন চলবে, মুক্তি পেয়ে জানালেন মেহেবুবা মুফতি



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:  জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও পিডিপি নেত্রী মেহেবুবা মুফতি একবছরেরও বেশি সময় ধরে আটক থাকার পরে অবশেষে মুক্তি পেয়েছেন। মঙ্গলবার রাত পৌনে ১০টা নাগাদ তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়। মেহবুবার মুক্তির বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইট করে জানান জম্মু-কাশ্মীর সরকারের মুখপাত্র রোহিত কানসাল।  


মুক্তি পাওয়ার পরে পিডিপি নেত্রী তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি একবছরেরও বেশি সময় পরে মুক্তি পেয়েছি। এই সময়ে, ৫ আগস্ট,  ২০১৯ সালের কালো দিনের ‘কালো সিদ্ধান্ত’ (৩৭০ ধারা  প্রত্যাহার) প্রতি মুহুর্তে আমার হৃদয় এবং আত্মাকে আক্রমণ করেছে। আমি মনে করি জম্মু-কাশ্মীরের সমস্ত মানুষও একইরকম অবস্থা অনুভব করেছে। সেদিনের অপমান আমরা কখনও ভুলতে পারি না।


মেহেবুবা বলেন, এখন আমাদের সকলকে মনে রাখতে হবে যে দিল্লি  ৫ আগস্ট বেআইনিভাবে আমাদের কাছ থেকে যা (৩৭০  ধারা) কেড়ে নিয়েছে তা ফিরিয়ে নিতে হবে। এর পাশাপাশি কাশ্মীর ইস্যু,  যেজন্য জম্মু-কাশ্মীরের হাজার হাজার মানুষ নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন, এর সমাধানের জন্য আমাদের সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। আমি মনে করি যে এই পথটি সহজ নয় কিন্তু আমি নিশ্চিত যে আমরা সকলের উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা পেয়েছি,  তাতে আমরা সফল হব। আমি চাই যে, জম্মু-কাশ্মীরের যত মানুষ এখনও কারাগারে বন্দি আছেন তাদের সবাইকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়া হোক। 


সুপ্রিম কোর্টে মেহবুবা মুফতির আটক সম্পর্কিত বিষয়টি পরবর্তী শুনানির মাত্র দু’দিন আগে তাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। গত বছর ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিল করার পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। গত ৬ ফেব্রুয়ারি তার বিরুদ্ধে কঠোর জননিরাপত্তা আইন (পিএসএ) কার্যকর করা হয়। গত ৭ এপ্রিল তাকে সরকারি বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সেটিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগেই উপ-কারাগার ঘোষণা করা হয়েছিল। চলতি বছরের ৩১ জুলাই তার হেফাজতের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছিল।


মেহবুবার মেয়ে ইলতিজা মুফতি তার মা’কে কোন যুক্তিতে আটকে রাখা হয়েছে তা নিয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন। সরকারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন ইলতিজা মুফতি। গত ২৯ সেপ্টেম্বর ওই মামলার শুনানির সময়ে আদালত সরকারের কাছে জানতে চেয়েছিল আর কতদিন মেহবুবাকে তাদের হেফাজতে রাখবে। এ বিষয়ে দু’সপ্তাহের মধ্যে সরকারের কাছে জবাবদিহি চেয়েছিল আদালত। এরপরেই অবশেষে এবার মুক্তি দেওয়া হল  মেহবুবাকে।


পিডিপি নেত্রী মেহেবুবা মুফতি মুক্তি পাওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইট করে ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ বলেন, ‘এক বছরেরও বেশি সময় ধরে আটক থাকার পরে মেহবুবাকে যে মুক্তি দেওয়া হয়েছে, তাতে আমি খুশি। অন্যায় ভাবে তাঁকে আটক করে রাখা হয়েছিল। যা গণতন্ত্র বিরোধী।’


মেহেবুবা মুফতির মেয়ে ইলতিজা মুফতি বলেন, ‘মেহবুবাকে অন্যায়ভাবে আটক করা হয়েছিল। অবশেষে মুক্তি পেয়েছেন।’ সঙ্কটময় মুহূর্তে যারা তার পাশে থেকেছেন, লড়াই চালিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে সাহস জুগিয়েছেন, তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ইলতিজা মুফতি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only