মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০

এবার নওয়াজের নামে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা



ইসলামাবাদ, ৬ অক্টোবরঃ মাত্র ক’দিন আগেই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই তথা পাকিস্তানের বিরোধী দল পিএমএল (এন)-এর সংসদীয় দলনেতা শাহবাজ শরিফকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে আরেক বিরোধী দলের শীর্ষনেতা তথা সে দেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারিকে দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত। এবার লন্ডনে চিকিৎসাধীন নওয়াজ ও তাঁর কন্যা কুলসুমের নামে দেশদ্রোহের মামলা দায়ের করল পুলিশ।


সেনাবাহিনী নিয়ে মন্তব্য করার দায়ে দলটির মোট ৪৪ প্রথম সারির নেতার বিরুদ্ধে লাহোরে এই মামলা হয়েছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল বলছেন, বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে ব্যাকফুটে চলে যাওয়ায় বিরোধী নেতাদেরকে কালিমালিপ্ত করে ব্যর্থতা ঢাকতে চাইছেন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এভাবেই তাঁর সরকারের কাজকর্ম থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে সস্তা পথে হাঁটছে সরকার।


বছর খানেক পর গত ২০ সেপ্টেম্বর বিরোধী জোটের এক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পাকিস্তানের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। লন্ডন থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ে সেনাবাহিনীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যারা ইমরান খানকে মসনদে বসিয়েছে এবং নির্বাচনে জালিয়াতি করে যারা তাঁর মতো অযোগ্য ব্যক্তিকে দেশের নেতৃত্বের আসনে তুলে এনে দেশকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই। 


এই মন্তব্যের জেরেই দেশদ্রোহের মামলা রুজু করে লাহোর পুলিশ অভিযোগ করেছে, সেনাবাহিনী ও সরকারের মধ্যে দ্বন্দ্ব উসকে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন নওয়াজ শরিফ। উল্লেখ্য, ইমরান খানের সরকারকে ক্ষমতাচু্যত করার লক্ষ্যে সম্প্রতি দেশটির বিরোধী দলগুলো একছাতার নীচে এসেছে। পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট নামে নতুন এই প্ল্যাটফর্মের নেতৃত্বে রয়েছেন মরহুম প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো ও প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জারদারির ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টো। 


চলতি মাস থেকেই তারা দেশজুড়ে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু করেছে। এই জোটবদ্ধ আন্দোলনকে বনচাল করতেই বিরোধী নেতাদের হেনস্থা করা হচ্ছে বলে ইমরানের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিরোধীদের। পাশাপাশি তাদের হুমকি, এভাবে বিরোধী ঐক্যকে ভাঙা ও দুর্বল করা যাবে না।  


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only