মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০

উইঘুর বুদ্ধিজীবীদের বেঘোরে মারছে চিন, বিনা বিচারেই হচ্ছে জেল



বেজিং, ১৩ অক্টোবর‌: শিক্ষাই মানবজাতির সম্বল। এর মাধ্যমেই অন্যায় ও অবিচারের কন্টকময় বেড়াজাল টপকে আলোর দুনিয়ায় প্রবেশ করতে পারে আস্ত একটি সম্প্রদায়। এই কথাটা বেশ ভালো বুঝতে পেরেছেন চিনের ক্ষমতাসীন সরকারের কর্মকর্তারা। আর তাই উইঘুর সম্প্রদায়ের মস্তিষ্কে আঘাত হানার ছক কষেছে কমিউনিস্ট পার্টি। এবার সরাসরি নিশানা বানানো হয়েছে উইঘুর বুদ্ধিজীবীদের। শিনজিয়াং প্রদেশের শিক্ষিত উইঘুররাই এখন চিনা আক্রমণের লক্ষবস্তুতে পরিণত হয়েছে। এ কারণেই হয়তো চিনের শিনজিয়াং প্রদেশ থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছেন একের পর এক বুদ্ধিজীবী। কোথায় যাচ্ছেন এঁরা? 


সূত্রের খবর, কোনও দোষ ছাড়াই এঁদের আটক করে জেলে পুরছে চিনের আধিকারিকরা। এরপর বিচারপর্বের কোনও বালাই নেই, অগত্যা বন্দি হয়েই থাকতে হচ্ছে এঁদের, জীবনের মূলস্রোত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েপড়তে হচ্ছে। উদাহরণস্বর‍ূপ উঠে আসে চিত্র পরিচালক হারসান হাসান বা অধ্যাপক তাসপোলাত তাইপের নাম। এঁদের কপালে বিচ্ছিন্নতাবাদীর তকমা সেঁটে দিয়ে জেলে ভরেছে চিন। ৫০ বছরের হারসান হাসানের প্রসঙ্গে বলতে হলে বলা যায়, এই ঘটনাটি উইঘুরদের দুর্দশার বড় উদাহরণ। আদতে হারসানকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়েছে চিন। হারসান একজন ভাষাতত্ত্বের শিক্ষক এবং অভিনেতা। স্বভাবতই উইঘুরদের মধ্যে থেকে এমন একজন বুদ্ধিজীবীর উঠে আসাকে অনেকেই ঈর্ষার চোখে দেখতেন। চিন সরকারের নির্দেশে তিনি আটক হন ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে। এরপর থেকে তাঁর ওপর শুরু হয় অমানবিক নির্যাতন। সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগে হারসানের ১৫ বছরের জেল হয়েছে। বিনা বিচারে হাজারো বন্দি অত্যাচারের ঘটনায় হাসান একটি উদাহরণ মাত্র। 


উল্লেখ্য, চিন সরকার উইঘুরদের বিরুদ্ধে দমন-নিপীড়ন চালিয়ে তাদের স্বাভাবিক জীবনধারাকে নষ্ট করে দিতে তৎপর হয়েছে। হাজার হাজার সংখ্যালঘু মুসলিমের মগজধোলাই করে তাদের শেখানো হচ্ছে রাষ্ট্রীয়রীতি-রেওয়াজ। মহিলাদের বন্ধ্যা করে দেওয়া হচ্ছে। সর্বোপরি, মানুষের থেকে ইসলাম ধর্ম পালনের সব অধিকার ছিনিয়ে নেওয়ার বর্বর খেলায় মেতেছে চিন। আর এবার উইঘুরদের নিচুতলার মানুষকে ছেড়ে ওপরমহলের স্বনামধন্য বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে শুদ্ধিকরণ অভিযান চালাচ্ছে বেজিং।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only