শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

বিয়ের জন্য ধর্মবদল ? কী রায় জানাল ইলাহাবাদ হাইকোর্ট ? পড়ুন একনজরে


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ এক দম্পতি পুলিশি নিরাপত্তা চেয়ে ইলাহাবাদ হাইকোর্টে রিট পিটিশন দাখিল করেছিলেন। কিন্তু সেই পিটিশন বাতিল করে দিয়েছে আদালত। হাইকোর্ট সূত্রে জানা গিয়েছে মহিলা মুসলিম কিন্তু বিয়ের পর ধর্ম পরিবর্তন করে হিন্দু হয়েছিলেন। বিচারপতি মহেশ চন্দ্র ত্রিপাঠি বলেছেন এটা স্পষ্ট যে শুধুমাত্র বিয়ের জন্যই এই ধর্মান্তরণ ঘটেছে। ২০১৪ সালের এক রায়কে উল্লেখ করে তিনি বলেন সেই রায়ে বলা হয়েছিল কেবলমাত্র বিয়ের জন্য ধর্ম পরিবর্তন করা গ্রহণযোগ্য নয়। আদালত তখন সেই রিট পিটিশন বাতিল করে দিয়েছিল। সংবিধানের ২২৬ ধারার সঙ্গে এর কোনও যোগ নেই এমনটা জানানো হয়েছিল। ২০১৪ সালে ইলাহাবাদ হাইকোর্ট এমনটা বলেছিল যখন এক হিন্দু মহিলা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে নিকাহ করার পর নিরাপত্তার জন্য আদালতে রিট পিটিশন জমা করেছিলেন। সেই সময় আদালত বলেছিল ইসলাম সম্বন্ধে কোনও জ্ঞান যদি না থাকে বা ইসলামে বিশ্বাস না থাকে তারপরও কোনও হিন্দু মেয়ে যদি শুধুমাত্র বিয়ের জন্য ইসলাম গ্রহণ করে তা বেআইনি নয়। লিলি থমাস বনাম কেন্দ্র সরকারের মামলায় আদালত জানিয়েছিল যদি কোনও সুস্থ মস্তিষ্কের প্রাপ্তবয়স্ক স্বেচ্ছায় আল্লাহ্র একত্ব ও মুহাম্মদের নবীত্বকে স্বীকার করে ধর্মান্তরিত হন তাহলে তা বেআইনি নয়। পাশাপাশি এও বলা হয়েছিল ধর্মান্তরণের ক্ষেত্রে আগের ধর্মের চেয়ে নতুন ধর্মের প্রতি সততা ও নতুন মতবাদের প্রতি দৃঢ় বিশ্বাস থাকা উচিত।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only