শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

কবি ভারভারার জামিনের শুনানি প্রসঙ্গে বম্বে হাইকোর্টকে কী নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত ? জানতে হলে পড়ুন

 

 


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ কবি ভারভারা রাও অসুস্থ। সেই দিকে খেয়াল রেখে তাঁর জামিনের আবেদনের শুনানি যাতে তাড়াতাড়ি হয় সেই ব্যাপারে বম্বে হাইকোর্টকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বম্বে হাইকোর্টকে শীর্ষ আদালতকে এও দেখার দায়িত্ব দিয়েছে যে কবিকে স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর প্রয়োজন রয়েছে কিনা। শুনানির দেরি হওয়ায় উদ্বেগও প্রকাশ করেছে সুপ্রিম আদালত। ভারভারা রাওয়ের জামিন চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন তাঁর স্ত্রী। জেলে কবির সঙ্গে অভব্য আচরণ করা হচ্ছে এবং এতে বাঁচার অধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলেও আবেদনে জানান কবিপত্নী। মানবিকতার খাতিরে অশীতিপর অসুস্থ কবিকে মুক্ত করার দাবিও জানানো হয়েছে বিচারপতি ইউ ইউ ললিত, বিনীত সরন ও রবীন্দ্র ভাটের বেঞ্চের কাছে। কবির আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংকে শুনানির সময় এই বেঞ্চ তিনটি বিষয়ের কথা বলেন। প্রথমত মামলাটি সম্মানীয় বম্বে হাইকোর্টের অধীনে রয়েছে। দ্বিতীয়ত হাইকোর্ট ইতিমধ্যে তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। তৃতীয়ত,স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার দিকে তাকিয়ে রাওয়ের জামিন দেওয়া যায় কি না তা বম্বে হাইকোর্ট দেখছে। এই কথা বলার পর বিচারপতি ললিত বলেন ‘এরপর আমরা কীভাবে মামলা শুনতে পারি?’ যদিও বেঞ্চ কবি রাওয়ের মুক্তির নির্দেশ দেয়নি তবে আবেদকারীর পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছেন যাতে তাঁরা বম্বে হাইকোর্টে গিয়ে কবির জীবনের অধিকার ও মানবিকতার প্রশ্ন তুলে জামিনের আবেদন করতে পারেন। বর্ষীয়ান আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং জানিয়েছেন কবি একেবারেই শয্যাশায়ী হয়ে গিয়েছেন এবং জেলে তাঁর সহবন্দি তাঁকে দেখভাল করছেন যাঁর কোনও মেডিক্যাল প্রশিক্ষণ নেই। তিনি আরও জানিয়েছেন যে কবিকে ইউরিন ব্যাগ ব্যবহার করতে হচ্ছে যা প্রতিদিন বদলানো দরকার কিন্তু ৪০ দিন হয়ে গিয়েছে সেই ব্যাগ কেউ বদলায়নি। এর ফলে তাঁর মূত্রনালীতে আরও সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ছে এবং স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে বামন নারায়ণ ঘিয়া বনাম রাজস্থান সরকারের মামলায় রাজস্থান হাইকোর্টের রায়কে তুলে এনেছেন ইন্দিরা। তিনি দাবি করেছেন বন্দির মেডিক্যাল ট্রিটমেন্টের অধিকারকে স্বীকৃতি দিয়েছিল রাজস্থান হাইকোর্ট। তাহলে কবি ও অধ্যাপক ভারভারা রাওয়ের সঙ্গে কেন ভিন্ন আচরণ করা হবে? প্রসঙ্গত ভীমা কোরেগাঁও ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ২০১৮ সালে কবি ড. ভারভারা রাওকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাঁর পরিবার বা বম্বে হাইকোর্টকে না জানিয়েই রাজ্য সরকার কবিকে তালোজা জেলে পাঠিয়ে দিয়েছিল। এখন তিনি জেল হাসপাতালেই রয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only