শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০

লক আপে অভিযুক্তের মৃত্যুর অভিযোগে উত্তেজনা মল্লার পুরে! পড়ুন বিস্তারিত

 




দেবশ্রী মজুমদার, মল্লারপুর, ৩০ অক্টোবর: এক মোবাইল চোরের পুলিশি হেফাজতে মৃত্যুর অভিযোগে বিক্ষোভ বীরভূমের মল্লার পুরে ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মল্লারপুর থানার অন্তর্গত মল্লার পুরের বাউড়ি পাড়ায় ঘটনার পর পুলিশ মৃতের মা বাবাকে তুলে নিয়ে যায় মৃত কিশোরের নাম শুভ মেহেনা (১৫)  কিন্তু এলাকাবাসীর একাংশ মল্লারপুরে থানা ঘেরাও করার পর জাতীয় সড়কের উপর টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে উত্তেজিত মানুষ ঘটনা স্থলে ছুটে আসে পুলিশ স্থানীয় মানুষের সঙ্গে প্রশাসনের বচসাও হয় 

স্থানীয় বাসিন্দা মঞ্জু বাউড়ি বলেন, মৃতের বাড়ি আর তাদের বাড়ির একটাই উঠোন সপ্তমীর দিন এলাকার এক ব্যক্তির মোবাইল চুরি যায় সেই অভিযোগে পুলিশ শুভকে তুলে নিয়ে যায় নিজের দোষ স্বীকার করে মোবাইল ফেরত দেয় শুভ তারপর পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয় কিন্তু শুভ পুলিশকে জানায়, তাদের ৩০ জনের একটি টিম আছে এরপর তিন দিন আগে ফের পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যায় আমরা নিজের চোখে দেখেছি, পুলিশ শুভকে বেধড়ক মারে তাকে খেতেও দেয় নি পুলিশ হেফাজতে পিটিয়ে মেরে দেয়, বলে আমাদের ধারণা 

তবে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, যেহেতু অভিযুক্ত নাবালক ছিল, তাকে লক আপে ভরা হয় নি বাইরে বসিয়ে রাখা হয়েছিল তারপর বাথরুমে যায় ফিরছে না দেখে, বাথরুমে গেলে দেখা যায়, গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছে এদিকে বিজেপির তরফে মৃতের পরিবারকে বিজেপি সমর্থক বলে দাবি করা হয় বিজেপির বীরভূম জেলা সাধারণ সম্পাদক অতনু চট্টোপাধ্যায় বলেন, তিন দিন ধরে এক কিশোরকে লক আপে ভরে রেখে অত্যাচার করে মেরে ফেলা হলো অথচ নিয়ম মাফিক ২৪ ঘন্টার মধ্যে যে কোন অপরাধীকে আদালতে তোলা নিয়ম এক্ষেত্রে তা হয় নি আমরা আগামী কাল ১২ ঘন্টার মল্লার পুর বন্ধ ডেকেছি মৃতের পরিবার আমাদের দলের সমর্থক আমরা মল্লারপুর থানার ওসির শেষ দেখে ছাড়বোঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only