শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

সন্ত্রাসের কাছে মাথানত নয়ঃ ম্যাক্রোঁ



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছেন সন্ত্রাসবাদের কাছে মাথানত করা হবে না। বৃহস্পতিবার তিউনিশীয় বংশোদ্ভুত এক যুবকের ছুরি হামলায় এক মহিলা সহ তিনজনকে হত্যার পর নীস শহর পরিদর্শনে গিয়ে তিনি আরও বলেন এখানে যা ঘটেছে তা একেবারেই অমানবিক। এটা ইসলামপন্থী সন্ত্রাসবাদ। ফরাসি জাতির মূল্যবোধ হল তারা কখনও অন্যায়ের কাছে মাথানত করে না। এই ছুরি হামলার ঘটনাটি ঘটে ঐতিহাসিক নটরডম গির্জার সামনে। তাই খ্রিস্টানদের পরিচালিত স্কুল ও চার্চগুলোর নিরাপত্তায় ৭ হাজার সেনা মোতায়েন করার কথাও ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ। একইসঙ্গে দেশজুড়ে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার সতর্কতা জারি করেন তিনি। মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের জেরে তীব্র ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করে এদিন তিনি বলেছেন এরপর আবারও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে সেটা হবে ফ্রান্সের স্বাধীনতা ও মূল্যবোধের ওপর হামলা। আমাদের দেশ ক্রমেই সেই সঙ্কটের দিকে এগোচ্ছে। যে কোনও মূল্যে আমাদের স্বাধীনতা রক্ষা করতে হবে। ফরাসি মূল্যবোধ কখনও সন্ত্রাসবাদের কাছে মাথানত করবে না।


জানা গিয়েছে ছুরি হামলাকারী ২১ বছর বয়সি তিউনিসীয় যুবক গতমাসে ইতালি হয়ে অভিবাসী হিসেবে ফ্রান্সে আসে। এর আগে ১৬ অক্টোবর কট্টর ইসলাম বিদ্বেষী এক শিক্ষককে গলা কেটে নৃশংসভাবে খুন করে চেচেন বংশোদ্ভুত ১৮ বছরের এক মুসলিম তরুণ। উল্লেখ্য যে ১ অক্টোবর ফরাসি প্রেসিডেন্ট আচমকা বলে বসেন বিশ্বজুড়ে ইসলাম ধর্মে সংকট দেখা দিয়েছে। তাই ফ্রান্সের ক্ষেত্রে ইসলামকে আরও উদার ও মুক্ত করতে হবে। তাঁর এই বিতর্কিত বক্তব্য নিয়ে মুসলিম বিশ্বে আলোড়ন পড়ে যায়। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের সঙ্গে তীব্র বাক্বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন ম্যাক্রোঁ। এই জের চলতে থাকায় ঠিক ১৫দিন পর কট্টরপন্থী ইসলাম বিদ্বেষী শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি ক্লাসের মধ্যে মহানবী সা.-কে ব্যঙ্গ করে আঁকা কিছু কার্টুনছবি টাঙিয়ে বাক্ প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে ছাত্রদেরকে বোঝাচ্ছিল। 


কুখ্যাত শার্লি এবদো ম্যাগাজিনে বিভিন্ন সময়ে  প্রকাশিত ওইসব কার্টুনকে  সমর্থন করে  পড়ুয়াদেরকে বোঝাচ্ছিল একেই বলে বাক্ ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা। এই স্বাধীনতার ক্ষেত্রে কোনও নিয়ন্ত্রণ বা নিষেধাজ্ঞা কাম্য নয়। তার কয়েক ঘন্টা পরেই প্রকাশ্য রাস্তায় তাকে ছুরি দিয়ে মুন্ডূছেদ করে চেচেনীয় যুবক। এই মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের ঠিক ১৩দিনের মাথায় আবার ঘটল গির্জার সামনে ছুরি হামলা। যাতে এক মহিলা সহ তিনজনকে নৃশংসভাবে খুন করল তিউনিসীয় যুবক। দু’টো খুনের ক্ষেত্রেই সে দেশের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং এই হামলাকে ইসলামী সন্ত্রাসবাদ বলে অভিহিত করেছেন। একইসঙ্গে শিরচ্ছেদ হওয়া শিক্ষককে সমর্থন করেন তিনি এবং তাকে মরণোত্তর সর্বোচ্চ ফরাসি সম্মান ‘লিজিয়ঁ অফ অনার’ দেওয়া হয়। এসব ঘটনায় ফরাসি প্রেসিডেন্টের কট্টর ইসলাম বিদ্বেষী নীতি নিয়ে তুরস্কের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক তলানিতে পৌঁছায়। যার জেরে শার্লি এবদো ম্যাগাজিন ২৭ অক্টোবর তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানকে অবমাননা করে এক অতীব অশ্লীল কার্টুন প্রকাশ করে চরম বেহায়ানাপনার ঔদ্ধত্য নজির সৃষ্টি করে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only