শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

রুশ-মার্কিন অস্ত্রচুক্তির মেয়াদ ৫ বছর বৃদ্ধির দাবি বাইডেনের



ওয়াশিংটন, ২৭ নভেম্বরঃ আমেরিকার সঙ্গে রাশিয়ার অস্ত্রচুক্তির মেয়াদ আরও ৫ বছর বাড়ানোর দাবি জানালেন জো বাইডেন। ২০ জানুয়ারি শপথ নেবেন তিনি। তার দু-সপ্তাহ পর ওই চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সুতরাং মসনদে বসেই এ বিষয়ে চটজলদি সিদ্ধান্ত নিতে হবে বাইডেনকে। তাই আগেভাগেই ৫ বছর সময়সীমা বৃদ্ধির দাবি জানালেন নির্বাচিত ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট। কোনও শর্ত ছাড়াই রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্রচুক্তির মেয়াদ ৫ বছর বাড়ানো উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। কারণ, চুক্তির সময় শেষ হলে কোনও পক্ষ যে কোনও জায়গায় নিদ্বির্ধায় যত খুশি পরমাণু সহ সামরিক অস্ত্রসম্ভার মোতায়েন করতে পারবে। সে ক্ষেত্রে কোনও বাধা বা নিয়ন্ত্রণ থাকবে না। ফলে অস্ত্র প্রতিযোগিতা ভয়াবহ আকার নিতে পারে। দুই পরাশক্তির যুদ্ধের দামামা পৌঁছে যাবে পৃথিবীর প্রত্যেক কোণায়। 


উল্লেখ্য, গতবছর আগস্টে আচমকা রাশিয়ার সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু বিষয়ক আইএনএফ চুক্তি ছেড়ে বেরিয়ে যান ট্রাম্প। ১৯৮৭ সালে চুক্তিটি করেন সোভিয়েত ইউনিয়নের শেষ প্রেসিডেন্ট মিকাইল গর্বাচভ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগন। এদিকে অস্ত্রচুক্তির মেয়াদ বাড়াতে বাইডেনের বিদেশ ও প্রতিরক্ষা বিষয়ক উপদেষ্টারা তাঁকে সুপারিশ করে চিঠি দিয়েছেন। চুক্তিটার নাম ‘নিউ স্টার্ট-২০১০’। ২০১১ থেকে যা কার্যকর হয়। বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন, চুক্তির মেয়াদ না বাড়লে ১৯৯১ সালে রুশ-মার্কিন স্নায়ুযুদ্ধ বা ঠাণ্ডাযুদ্ধের অবসানের ৩ দশক পর আবারও দুই বৃহৎ শক্তির মধ্যে সামরিক উত্তেজনা দেখা দেবে। 


এ প্রসঙ্গে পূর্বতন ওবামা-বাইডেন সরকারের সামরিক উপদেষ্টা জন উলফস্টল বলেছেন, এতে এক ঢিলে অনেক পাখি মারলেন বাইডেন। রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর দাবি তোলায় একদিকে ট্রাম্পের রাশিয়াপ্রীতি ঘুচবে, আবার একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক মহলকে কূটনৈতিক ও সামরিক বিচক্ষণতার পরিচয় দিলেন বাইডেন। অন্যদিকে গতবছর ট্রাম্প আইএনএফ চুক্তি ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার পর অস্ত্রচুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির দাবির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ঐক্যের বার্তাও দিলেন বাইডেন। উল্লেখ্য, রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন এখনও বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানাননি। অথচ ২০১৬ সালের নভেম্বরে সবার আগে ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানান তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only