রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০

মধ্যপ্রদেশে উপ-নির্বাচনে কংগ্রেসের জন্য ভোট চাইলেন জ্যোতিরাদিত্য



ভোপাল, ১ নভেম্বর: শিবির বদলেছেন। কিন্তু পুরনো অভ্যাস বদলাতে পারেননি জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। তাই উপ-নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে কংগ্রেসের হয়ে ভোট চেয়ে বসলেন বিজেপির এই হেভিওয়েট নেতা। ভোটপ্রচারের সেই ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। জ্যোতিরাদিত্যর মন্তব্যকে হাতিয়ার করে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি কংগ্রেস। 


৩ তারিখ মধ্যপ্রদেশে ২৪টি কেন্দ্রে  উপনির্বাচন। ক্ষমতায় ফিরতে হলে কংগ্রেসকে ২৮টি আসনই জিততে হবে। অন্যদিকে ক্ষমতা অটুট রাখতে হলে বিজেপিকে ওই আসনগুলি ধরে রাখতে হবে। ফলে মরণ বাঁচন টক্কর দুই দলের কাছেই। এই অবস্থায় প্রচারের কাজ চলছে জোর কদমে। রবিবার ডবরা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী ইমরতী দেবীর হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। জনসভায় তিনি বলে বসেন, 'হাত মুঠো করুন। আমাদের আশ্বস্ত করুন, ৩ তারিখ ইভিএম-এ শুধু হাত বোতামেই ভোট পড়বে।' পরক্ষণেই অবশ্য নিজের ভুল শুধরে নেন তিনি। কিন্তু ততক্ষণে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ওই ভিডিয়ো। হুহু করে ভাইরাল হয় সিন্ধিয়ার ওই মন্তব্য।  


প্রদেশ কংগ্রেসের তরফেও জ্যোতিরাদিত্যর ওই ভাষণের ভিডিয়ো শেয়ার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে সিন্ধিয়াকে খোঁচা, মধ্যপ্রদেশের মানুষ আপনাকে আশ্বস্ত করছে যে তারা হাতের বোতামেই ৩ তারিখ ভোট দেবেন।তবে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ গেরুয়া শিবির। মুখ ফস্কে বলে দিয়েছেন ওই কথা বলে বলে সাফাই বিজেপির। এদিকে আরেকটি ভোট প্রচারে গিয়ে কংগ্রেস নেতা কমল নাথ সিন্ধিয়াকে ‘কুকুর’ বলে কটাক্ষ করেন অভিযোগ। সেই কটাক্ষের পালটা জবাব দিয়েছেন সিন্ধিয়া। তাঁর জবাব,  'হ্যাঁ আমি জনতার কুকুর। সাধারণ মানুষ আমার প্রভু। কুকুর যেমন প্রভুকে রক্ষা করে, আমিও তেমন জনতাকে রক্ষা করি।'

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only