রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০

কার্টুনে প্রিয় নবী মুহাম্মাদ(সা.)-এঁর অবমাননা : পিছু হটলেন ম্যাকরন

  


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক : ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন তার ইসলাম বিদ্বেষী ও ইসলাম অবমাননাকর বক্তব্য থেকে কার্যত পিছু হটেছেন। শনিবার আল-জাজিরা টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ইসলাম অবমাননাকর কার্টুন প্রকাশের ফলে মুসলিমদের অনুভূতিতে যে আঘাত লেগেছে তা তিনি উপলব্ধি করছেন। তাঁর দাবি, কিছু মানুষ আছে যারা ইসলাম ধর্মের বিকৃতি ঘটাচ্ছে এবং এই ধর্মের নাম নিয়ে এটি রক্ষার ঝাণ্ডা হাতে তুলে নিয়েছে।  


প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন আরও বলেন, ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশ কোনো সরকারি প্রকল্প নয় বরং এমন কিছু পত্রিকা এ কাজ করেছে যাদের ওপরে সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। ম্যাকরনের ইসলাম অবমাননাকর বক্তব্যের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী মুসলিমরা তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়ার পরে অবশেষে নিজের বক্তব্য থেকে তিনি সরে গেলেন বলে মনে করা হচ্ছে।


ফ্রান্সে সম্প্রতি কাল্পনিক কার্টুন প্রদর্শনের মধ্যদিয়ে প্রিয় নবী মুহাম্মাদ(সা.)-এঁর অবমাননা করায় এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট তাঁকে সমর্থন করে বক্তব্য দেয়ায় ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা মুসলিম সমাজ।


এরআগে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, ফ্রান্সে এ ধরনের কার্টুন ছাপানো কখনও বন্ধ হবে না। এর পাশাপাশি তিনি গোটা বিশ্বে ইসলাম ধর্ম সংকটের মধ্যে রয়েছে বলে মন্তব্য করেন।


সম্প্রতি ফ্রান্সের স্যামুয়েল প্যাটি নামের একজন শিক্ষক তার ক্লাসের শিক্ষার্থীদের সামনে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)-এঁর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করার পরে এক হামলায় নিহত হন। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন ওই হত্যাকাণ্ডের জন্য তার দেশের মুসলিমদের দায়ী করেন এবং দাবি করেন, মুসলিমরা ফ্রান্সকে ধ্বংস করে ফেলতে চায়। এরপরেই প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের বিরুদ্ধে প্রিয় নবী (সা)–এঁর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুনকে সমর্থন করা এবং ইচ্ছাকৃতভাবে মুসলিমদের অনুভূতিতে আঘাত করার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় উঠেছে। এবং তাঁর ক্ষমা প্রার্থনা করা দাবি উঠেছে।

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only