শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০

দেশ থেকে বিতাড়িত হওয়ার পরও বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিস্ফোরক মন্তব্য প্রধানমন্ত্রী সেখ হাসিনাকে নিয়ে !



নয়াদিল্লি, ৬ নভেম্বর‌: প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে বাংলাদেশের প্রভূত ক্ষতি করেছেন শেখ হাসিনা। যা অন্য কোনও প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে হয়নি বলে দাবি করেছেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তাঁর কথায়, হাসিনা যত ক্ষতি করেছেন বাংলাদেশের, তত ক্ষতি অন্য কোনও প্রধানমন্ত্রী করেননি। একইসঙ্গে উলেমাদের আক্রমণ করে তিনি আরও বলেছেন, রাজনৈতিক সব বিরোধীদলকে পঙ্গু করে দিয়ে তিনি শক্তিশালী করেছেন ধর্মান্ধ জিহাদিদের। এই ক্ষতি পূরণ ২০০ বছরেও সম্ভব নয়।


নিজের দেশ বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত হয়েও ওই দেশ সম্পর্কে মাঝে মধ্যে বিতর্কিত টু্ইট করেন তসলিমা নাসরিন। বাংলাদেশের যাবতীয় বিষয় নিয়ে নিজের অভিমত পোষণ করে থাকেন তিনি। সেই ধারা বজায় রেখেই এবার বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকার আক্রমণের মুখে ওই দেশের প্রশাসন এবং প্রশাসনের সর্বময় কর্ত্রী শেখ হাসিনা।


ঢাকায় লক্ষাধিক মানুষের জমায়েত করে বিক্ষোভ দেখানো নিয়েই মুখ খুলেছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আক্রমণ করে তসলিমা বলেছেন, হাসিনা জমায়েতের ডাক দিলে আজ যত লোক হবে, তার চেয়ে বেশি হবে কোনও পীর বা হুজুর ডাক দিলে। এই ব্যবস্থাটি হাসিনাই করেছেন। ওই ‘লিঙ্গপাল’গুলোর দয়ায় আর কিছু গোলাম-সাংবাদিকদের করুণায় তিনি অবৈধভাবে অনন্তকাল ক্ষমতায় টিকে থাকতে চান, আছেনও।


এখানেই শেষ হয়ে যায়নি হাসিনার বিরুদ্ধে তসলিমার আক্রমণ। বাংলাদেশের সংখ্যালঘু ব্যক্তিদের নিরাপত্তা দিতে হাসিনা ব্যর্থ বলে দাবি করেছেন তসলিমা। তিনি বলেছেন, হাসিনা ক্ষমতায় এলে দেশের হিন্দুরা নিরাপদে থাকবে এমন আশার বাণী কত যে শুনেছি জীবনে! 


সেইসঙ্গে তসলিমা নাসরিন আরও বলেছেন, জিহাদিদের আম্মির কাছ থেকে কোনও সুস্থ সুন্দর-শান্তির সমাজ আশা করাটাই তো বোকামো। উনি ভেবেছেন, অর্থনীতি ভালো করলেই বুঝি তাঁর সাত খুন মাফ। আরব দেশের কত ধনী দেশকে জিহাদিরা খেয়ে ছিবড়ে করে দিয়েছে। এত যে বলছি, কী লাভ! যিনি কানে দিয়েছেন তুলো পিঠে বেঁধেছেন কুলো--- তিনি মরে যাবেন কিন্তু শোধরাবেন না, মন্তব্য তসলিমার।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only