বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০

ইরাক-আফগানিস্তান থেকে সরানো হচ্ছে মার্কিন সেনা



ওয়াশিংটন, ১৯ নভেম্বরঃ গতবছরের প্রথম দিকেই সেনা প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর সেই ঘোষণা নিয়ে প্রথম থেকেই ঘরে-বাইরে তোপের ম‍ুখে পড়েন ট্রাম্প। তা সত্ত্বেও তিনি বলেছিলেন, ইরাক, সিরিয়া, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হবে। আমেরিকা কেন গাঁটের টাকা খরচ করে সারাবিশ্বে পুলিশগিরি করবে। বিদায়কালেও দেখা গেল তিনি নিজের জিদেই অনড় রয়েছেন। 


যদিও এই ইস্যুতে সর্বপ্রথম তাঁর সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে পদত্যাগ করেছিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস। গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার। এখনও ট্রাম্পের রাজনৈতিক দল রিপাবলিকান পার্টি সেনা প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে মত পোষণ করে চলেছে। মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমাদের সামরিক জোট ন্যাটোর সঙ্গে ট্রাম্পের দ্বিমত দেখা যাচ্ছে। এই প্রেক্ষিতেই আমেরিকার নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলার ঘোষণা করেছেন, ১৫ জানুয়ারি আফগানিস্তান থেকে ২ হাজার এবং ইরাক থেকে ৫০০ সেনা প্রত্যাহার করা হবে।  


এ দিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সবথেকে দীর্ঘমেয়াদি যুদ্ধে ব্যর্থ হয়েই শেষমেশ সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে আমেরিকা। সম্পূর্ণ সাজানো অভিযোগের ভিত্তিতে ২০০১ সালের শেষদিকে কথিত সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধ চাপিয়ে দেওয়া হয় আফগানিস্তান, ইরাক প্রভৃতি দেশে। দীর্ঘ ১৯ বছর ধরে যুদ্ধ চালিয়ে অগণিত নিরীহ মানুষকে গণহারে হত্যা এবং অপরিমেয় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে মুসলিম দেশগুলোকে কঙ্কালসার করে দেওয়া হয়েছে। বানোয়াট বা মনগড়া অভিযোগ এনে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া, লিবিয়া, লেবানন, ইয়েমেনকে গোরস্থান ও ইয়াতিমের দেশে পরিণত করে পশ্চিমারা। 


এবার ঘরে-বাইরে সাঁড়াশি চাপের ম‍ুখেও ট্রাম্প ঘোষণা করেছেন, তিনি বিদায় নেওয়ার আগে আফগানিস্তান থেকে আড়াই হাজার এবং ইরাক থেকে ৫০০ সেনা ফেরানো হবে। এখন আফগানিস্তানে ৪৫০০ এবং ইরাকে রয়েছে ৩ হাজার সেনা। উল্লেখ্য, চলতি বছর ফেব্র‍ুয়ারিতে তালিবানের সঙ্গে চুক্তি করেছে আমেরিকা। সেইমতো তালিবানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে তাদেরকে মূলস্রোতের রাজনীতিতে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তালিবানের ৫ হাজার বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তালিবানও তাদের হেফাজতে থাকা সমস্ত দেশি-বিদেশি সেনাকে মুক্তি দিয়েছে।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only