বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০

সুভাষ সরোবরে ছট পুজো করা যাবে, নির্দেশ হাইকোর্টের



পুবের কলম প্রতিবেদক:­ পরিশের বাস্তুতন্ত্র ও জীববৈচিত্র রক্ষার জন্য রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো নিষিদ্ধ করেছিল ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। পরে কলকাতা হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টও সেই নির্দেশ বহাল রেখেছিল। তবে রবীন্দ্র সরোবরের সঙ্গে সঙ্গে সুভাষ সরোবরেও এবছর ছট পুজোয় নিষিদ্ধ করেছিল রাজ্যের উচ্চ হাইকোর্ট। গত ১০ নভেম্বর এই নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। কিন্তু, মানুষের আবেগের কথা ভেবে সেই নির্দেশ পুনর্বিবেচনার জন্য এদিন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দোপাধ্যায়ের এজলাসে আর্জি জানায় রাজ্য সরকার। কিন্তু, সেই আর্জি খারিজ করে দিল হাইকোর্ট। 

রাজ্যের আর্জি ছিল গত ১০ নভেম্বর ছট পুজো নিয়ে কলকাতা হাইকোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছিল তা মূলত ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের নির্দেশের ওপরেই ভিত্তি করে দেওয়া হয়েছিল। প্রসঙ্গত, ছটপুজোয় ঐতিহ্যবাহী রবীন্দ্র সরোবরের ক্ষতি হচ্ছে। সেখানে বাস্তুতন্ত্রের ভারসাম্য রক্ষা হচ্ছে। মৃতু্য হচ্ছে জলজ প্রাণীর। এই অভিযোগ তুলে রবীন্দ্র সরোবরে  ছটপুজো বন্ধের দাবিতে ২০১৭ সালে পরিবেশ আদালতে মামলা করেন পরিবেশবিদ সুভাষ দত্ত। তারভিত্তিতে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি তৈরি করে রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করে আদালত। এরজন্য সেখানে পুলিশও মোতায়েন করা হয়। কিন্তু, তারপরেও নজরদারি এড়িয়ে পর পর দুবছর সেখানে ছটপুজো করা হয়। যদিও পরে সুপ্রিম কোর্টও একই নির্দেশ বহাল রাখে। এবং তা কার্যকর করতে বলে।

অন্যদিকে, কলকাতা হাইকোর্টও একই নির্দেশ দেয়। রাজ্যের বক্তব্য, জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশের ভিত্তিতেই হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল। জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশে শুধু রবীন্দ্র সরোবরের জন্য ছিল । তাই সুভাষ সরোবরে যাতে ছট পুজোয় নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয় সেই আর্জি জানান রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত। কিন্তু, সেই আর্জি খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট। হাইকোর্টের পর্যবে ক্ষণ সেখানে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে। তাই সুভাষ সরোবরেও এবার ছট পুজো নিষিদ্ধ থাকবে। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only