শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০

হাফিজকে ১০ বছর কারাদণ্ড দিল লাহোর কোর্ট



পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃ মুম্বই হামলার মূলচক্রী হাফিজ সাঈদকে ১০ বছর কারাদণ্ড দিল পাকিস্তানের এক আদালত। লস্কর-এ-তৈয়বা এবং জামাত-উদ-দাওয়ার মতো দুই সন্ত্রাসী সংগঠনের সুপ্রিমো হাফিজকে বৃহস্পতিবার এই সাজা শোনায় লাহোরের সন্ত্রাস বিরোধী আদালত। ভারত তথা আন্তর্জাতিক চাপের মুখে গতবছর ১৭ জুলাই এই হেভিওয়েট সন্ত্রাসী কমান্ডারকে গ্রেফতার করতে বাধ্য হয় পাকিস্তান। তার বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ ছিল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে অর্থ জোগানো। আমেরিকা তার মাথার দাম ১ কোটি ডলার ঘোষণা করেছিল। উল্লেখ্য, এর আগে চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে অন্য এক সন্ত্রাসী মামলায় তাকে ১১ বছর কারাদণ্ড দেয় সন্ত্রাস দমন আদালত। 

বর্তমানে লাহোরের লাখপত কারাগারে বন্দি রয়েছে হাফিজ সাঈদ। এদিন জামাত-উদ-দাওয়ার ৪ নেতার সাজা ঘোষণা করল লাহোর সন্ত্রাস বিরোধী আদালত। অন্য তিনজন হল হাফিজের ঘনিষ্ঠ সহযোগী জাফর ইকবাল, ইয়াহিয়া মুজাহিদ এবং হাফিজের শ্যালক আবদুল রহমান মাক্কি। প্রথম দু’জনের সাড়ে ১০ বছর এবং শেষ জনের ৬ মাস জেল হয়েছে। বিচারক আরশাদ হুসেন ভুট্টোর এজলাশ সূত্রে জানা যায়, জামাত-উদ-দাওয়ার নামে মোট ৪১টা মামলা রয়েছে। যার মধ্যে ২৪টা মামলার রায় হয়েছে। বাকি ১৭টা মামলা এখনও বিভিন্ন আদালতে ঝুলছে। আর ৪টা মামলায় হাফিজের সাজা ঘোষণা করেছে আদালত। লস্কর-এ-তৈয়বা’রই নতুন শাখা সংগঠন হল জামাত-উদ-দাওয়া। দুই সন্ত্রাসী সংগঠনেরই প্রধান হাফিজ সাঈদ। ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড লস্কর ও তার প্রধান হাফিজ। সেই ভয়াবহ হামলায় ৬ মার্কিনি সহ মোট ১৬৬ জনের প্রাণহানি হয়। আমেরিকা সরকার হাফিজকে আন্তর্জাতিক স্তরের সন্ত্রাসী বলে তকমা দেয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only