শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

দেওরের কুপ্রস্তাবে না , পরক্ষনেই নির্মমভাবে খুন হলেন গৃহবধূ



সংবাদ সংস্থা, মালদা:­ দেওরের কুপ্রস্তাবের প্রতিবাদ করেছিলেন বৌদি। তারই বদলা নিতে বৌদির পেটে ও যৌনাঙ্গে আঘাত করে খুন করার অভিযোগ উঠল দেওরের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে ভূতনি থানার দমনটোলা এলাকায়। ঘটনায় মৃত গৃহবধূর পরিবার পাঁচজনের বিরুদ্ধে ভূতনি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত গৃহবধূর নাম প্রিয়াঙ্কা মণ্ডল (২১)। বাড়ি কাটিহারের আমেদাবাদ থানার বড় নিতাইটোলা গ্রামে। মৃত গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, সম্প্রতি দেওর সাহেব মণ্ডল তার বৌদিকে বার বার কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। প্রতিবাদ করলে প্রিয়াঙ্কাকে বেধড়ক মারধর করা হত। বুধবার রাতে ফের সাহেব মণ্ডল বৌদিকে কুপ্রস্তাব দেয়। আর তাতে রাজি না হওয়য়া বৌদিকে মাটিতে ফেলে পেটে-মুখে লাথি মারার পাশাপাশি যৌনাঙ্গেও আঘাত করা হয়।

মৃতের মা জানান, প্রতিবেশীরা প্রিয়াঙ্কাকে উদ্ধার করে মালদা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করেন। ভূতনি থানার পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তরা পলাতক, তাদের খোঁজ শুরু হয়েছে। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only