রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০

ডেঙ্গুর প্রকোপ অনেক কম , আগেভাগেই বাড়তি চোখ ছিল পুরনিগমের


পুবের কলম প্রতিবেদক:­ করোনা মহামারির বিরুদ্ধে গোটা দুনিয়ার পাশাপাশি লড়াই চালাচ্ছে কলকাতা পুরনিগম। এরই পাশাপাশি ডেঙ্গু মোকাবিলাতেও ছিল বাড়তি নজর। ফলে গত বছরের তুলনায় অনেকটাই কমেছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। সবচেয়ে বড় কথা এবছর তুলনামূলকভাবে ৬৫ শতাংশ কম রয়েছে ডেঙ্গুর প্রভাব। করোনা নিয়ে দুশ্চিন্তার মাঝে এমনই আশার বাণী শোনাচ্ছেন কলকাতা পুরনিগমের প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র ও বর্তমান পুর-প্রশাসকমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য অতীন ঘোষ।

অতীন ঘোষ বলেন গত বছরের তুলনায় এবার কমেছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। এবার ৬৫ শতাংশ কম রয়েছে ডেঙ্গুর প্রভাব। এর কারণ হিসাবে তিনি বলেন করোনা আবহে এবার শহরের রাস্তাঘাটে বেশি করে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে ফলে মশার লার্ভা বংশবিস্তার করতে পারছে না।

ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের পথটা মোটেও সহজ নয় এরজন্য অনেক ঝক্কি সামলাতে হয় পুরকর্মীদের। মাঝে মাঝে বৃষ্টি হলে বাড়ির আনাচে-কানাচে,ফুল-ফলের গাছের টবে জল জমে যায়, ফলে মশার জন্ম হয়। করোনা পরিস্থিতির জন্য পুরকর্মীরা সবজায়গায় মশা মারার ওষুধ দিতে পারছে না। বড় আবাসনগুলিতেও অনেক সমস্যা আছে। হাজার প্রতিকূলতা সত্ত্বেও কঠোর পরিশ্রম করে মশা দমনে কাজ করে যাচ্ছেন তাঁরা। ডেঙ্গুর মোকাবিলা করতে গিয়ে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন দু’জন পুরকর্মী। যে কেউ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা যেতে পারেন। সঠিক চিকিৎসা একমাত্র সমাধান বলেই মনে করেন অতীন ঘোষ। বাসিন্দারা সচেতন হলে করোনার মতো ডেঙ্গুও  ঠেকানো যাবে বলে আগেই জানিয়েছিলেন পুর-প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। একইসঙ্গে ডেঙ্গু অভিযানেরও ডাক দেন তিনি। লাগাতার সচেতনতার প্রচার ও কর্মসূচির ফলশ্রুতিই যে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমার কারণ সে কথাই মনে করছেন পুর-আধিকারিকরা।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only