রবিবার, ২২ নভেম্বর, ২০২০

ড্রাগনের মোকাবিলায় লাদাখে সুড়ঙ্গ তৈরি করল ভারত

 


লাদাখ, ২২ সেপ্টেম্বরঃ লাদাখে উত্তেজনাপূর্ণ আবহাওয়াকে প্রশমিত করতে বেশ কয়েক মাস ধরে দফায় দফায় বৈঠক চলছে দু’দেশের শীর্ষ আধিকারিকদের। অন্যদিকে চিনের মিডিয়ার মিথ্যা প্রচারের বিরাম নেই। মাস কয়েক আগে লাদাখে দু’দেশের সেনার মধ্যে হঠাৎ করেই যে লড়াই শুরু হয়েছিল তাতে মাইক্রোওয়েব হাতিয়ার ব্যবহারের মিথ্যা গল্প ফেঁদেছিল চিনা মিডিয়া। চিনের পূর্ব ইতিহাসকে স্মরণে রেখে পূর্ব লাদাখে ডিস এনগেজমেন্ট প্রোসেসকে খুবই গুরুত্ব দিয়ে নজর রাখছে ভারত। এবং চিনের যে কোনওরকম সম্ভাব্য আক্রমণ এড়াতে লাদাখ সুড়ঙ্গ তৈরি করছে।

২৯-৩০ আগস্ট ভারতীয় সেনা জওয়ানদের স্পেশাল ফ্রন্টিয়ার ফোর্স (এসএফএফ)-এর সঙ্গে অভিযান চালিয়ে এলওসির প্যাগং-এর দখল নিয়েছিল। চিনের সমস্ত রকম প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে পাহাড়ের চূড়ায় উঠে দখল নিতে সক্ষম হয়েছিল ভারতীয় সেনা। এ সময়েই চিনের মিডিয়া মাইক্রোওয়েব হাতিয়ার ব্যবহারের মিথ্যা খবর প্রচার করে। চিন দ্বিতীয় চিন-জাপান যুদ্ধে সুড়ঙ্গর তৈরি করে সেনাদের রক্ষা করতে সফল হয়েছিল। ভিয়েতনামও ১৯৬০ সালে কোরিয়ার সঙ্গে গেরিলাযুদ্ধে এবং উত্তর কোরিয়ায় আমেরিকার বিরুদ্ধে একই রণনীতি গ্রহণ করা হয়েছিল। এক অভিজ্ঞ সেনা আধিকারিকের মতে, ভারতীয় সেনা শত্রুর হামলা থেকে জওয়ানদের বাঁচানোর জন্য সুড়ঙ্গের মধ্যে দিয়ে নিরাপদ জায়গা পর্যন্ত কংক্রিটের পাইপের বিছানো হয়েছে। যাতে হামলার সময় শত্রু সেনা হতচকিত হয়ে যায়। এই কংক্রিটের পাইপের ডায়ামিটার ছয় থেকে আট ফিট পর্যন্ত হয়। এরফলে, শত্রু সেনার চোখে ধুলো দিয়ে সহজেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পৌঁছে যাওয়া যায় খুব সহজেই। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only