রবিবার, ২২ নভেম্বর, ২০২০

মুফতিকে বিয়ে করলেন প্রাক্তন অভিনেত্রী সানা খান




বিশেষ প্রতিবেদনঃ বলিউডকে বিদায় জানিয়েছিলেন আগেই। এবার এক মুফতিকে বিয়ে করলেন অভিনেত্রী সানা খান। সালমান খানের বিগবস ৬-এ অংশ নিয়েছিলেন। টিভিতেও তিনি ছিলেন পরিচিত মুখ। সাবলীল অভিনয়ের জন্য প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন তামাম সিরিয়ালমোদীদের। কিন্তু দঙ্গল-খ্যাত জায়রা ওয়াসিমের মতো আচমকা গ্ল্যামার জগৎ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ইসলামি জীবনাদর্শের মধ্যেই শান্তি খুঁজে পান। নির্মম প্রতিযোগিতা চলে বলিউডের কৃত্রিম আলোকময় ঝলমলানির মধ্যে টিকে থাকার। এই ইঁদুর-দৌড়ে পিছিয়ে পড়ার ভয়ে অনেকে আত্মহত্যাও করেছেন। বলিউডের ইতিহাস তাই বলে। তাৎক্ষণিক খ্যাতি জুটে যায় বটে কিন্তু তার বিনিময়ে শিল্পীদের চোকাতে হয় জীবনের মূল্য। নিশি পার্টি, মাদকসেবন, খোলামেলা পোশাক, অবাধ যৌনতায় সায় দিতে হয় অনেককেই অনিচ্ছা সত্ত্বেও। এই সবের মধ্যে শান্তি নেই, রয়েছে কাজ হাত ছাড়া হওয়ার ভয়,হতাশা ও অবসাদ। তাই সানা খান খুঁজছিলেন ভিন্ন পথ। ইসলামি আধ্যাত্মিকতায় সেই পথের সন্ধান পান তিনি। হিজাব পরা শুরু করেন বলে তিনি তথাকথিত উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তি ও নারীবাদীদের সমালোচনার মুখে পড়েন। কিন্তু ব্যক্তিস্বাধীনতা ও নারীস্বাধীনতার এটাও একটা দিক তা তিনি বুঝিয়ে দেন নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থেকে। প্রমাণ করেন যে, ধর্মপ্রাণ হওয়া দোষের কিছু নয়। কোটিপতি, শিল্পপতিদের বিয়ে করার জন্য অনেকে যেখানে মরিয়া তখন একজন মুফতিকে বিয়ে করে বিরল নজির তৈরি করলেন সানা খান। শনিবার গুজরাতে মুফতি আনাসের জীবনসঙ্গিনী হিসাবে পথ চলা শুরু করলেন সানা। বিবাহ অনুষ্ঠানে সানা পরেছিলেন শুভ্র ব্রাইডাল গাউন। হিজাবও ছিল। এই পোশাকে ঝলমলে সানার পাশে মুফতি আনাস পরেছিলেন সাদা কুর্তা-পায়জামা। অনাড়ম্বর ছিল এই অনুষ্ঠান। বিলাসবহুল জীবন থেকে ছুটি নিয়েছেন তিনি। আল্লাহ্ ও রসুলের দেখানো সহজ পথে হাঁটবেন বলে। মানুষের সেবায় জীবন ব্যয় করবেন,এমনই তাঁর আগামী দিনের সংকল্প। শুভেচ্ছাবার্তায় উপচে উঠছে তাঁর ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only