মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২০

ফের বৃহত্তর ‘নাগলিম’ রাজ্যের দাবি, দোটানায় কেন্দ্র সরকার

 


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে নাগাচুক্তির সফল রুপায়ণের জন্য উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রত্যেকটি নাগা অধ্যুষিত অঞ্চলকে একটি প্রশাসনিক ইউনিটের আওতায় নিয়ে আসার দাবি ফের উত্থাপন করল নাগা জঙ্গি সংগঠন এনএসসিএন। তাদের দাবি, নানা সমস্যার রাজনৈতিক সমাধানের জন্য বৃহত্তর নাগলিম রাজ্যের দাবি থেকে এনএসসিএন কোনও অবস্থা থেকেই সরে যাচ্ছে না। বৃহত্তর নাগলিমের জন্য পৃথক বাজেটের প্রস্তাবও রেকেছে এনএসসিএন। উত্তর-পূর্বের এই জঙ্গি-জট খুলতে হস্তক্ষেপ করতে হচ্ছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

জঙ্গি সংগঠন এনএসসিএন-এর তরফে এক বার্তায় ফের বৃহত্তর নাগারাজ্য ‘নাগলিম’-এর দাবি জানিয়ে বলা হয়েছে– ২০১৫ সালের ৩ আগস্ট কেন্দ্রের সঙ্গে স্বাক্ষরিত ‘ঐতিহাসিক’ চুক্তিতে নাগাদের ইতিহাস ও তাদের স্বতন্ত্র পরিচয়ের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। এতে বৃহত্তম নাগলিম রাজ্যের দাবিকেও কেন্দ্র সরকার মান্যতা দিয়েছে। ফলে এখন এর বাস্তব র*পায়ণের সময় এসে গেছে।

তবে এনএসসিএন-এর তরফে ফের বৃহত্তম নাগলিম রাজ্য গঠনের দাবি ওঠায় অসম সহ উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। মণিপুরের বীরেন্দ্র সিং সরকার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে বৃহত্তম নাগারাজ্যের দাবি কোনওভাবেই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। ইম্ফলে রাজ্য বিধানসভার সচিবালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী বীরেন্দ্র সিং বলেছেন মণিপুরের অখণ্ডতা কোনওভাবেই ক্ষু] হতে দেওয়া হবে না। রাজনৈতিক চাপে আপসের প্রশ্নই ওঠে না। মণিপুরের মানুষ রাজ্যের মানচিত্রের সংকোচন কোনওমতেই মেনে নেবেন না।

অন্যদিকে ২০১৫ সালে করা নাগাচুক্তিকে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য বিষয়টিকে আর ঝুলিয়ে না রেখে একটি সাধারণ ঐকমত্য গড়ে তোলার জন্য স্বয়ং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীঅমিত শাহ উদ্যোগ নিয়েছেন। এর জন্য খুব শীঘ্রই তিনি উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলি সফরে যাবেন বলে জানা গেছে। একদিকে নাগাদের আত্মপরিচয়ের দাবিকেও যেমন কেন্দ্র সরকার উপেক্ষা করতে চাইছে না, তেমনি বৃহত্তর নাগলিম গঠনের জন্য উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলির মানচিত্র বদল করা আদৌ সম্ভব কি না, তা নিয়ে চলছে দোটানা। কেবল মণিপুর নয়, নাগলিম রাজ্য হলে অসমেরও মানচিত্র বদল হবে। এটা ওই দুই রাজ্যের মানুষ কতটা মেনে নেবেন, সেটাই দেখার।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only