শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

প্রধানমন্ত্রীর মুখে ফের একবার ‘এক জাতি-এক নির্বাচন’-এর ডাক




কেভাডিয়া, গুজরাতঃ ফের একবার ‘এক জাতি, এক নির্বাচন’-এর জোরালো ডাক দিলেন এ দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ দিন নির্বাচনী প্রিসাইডিং অফিসারদের এক ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন মোদি। তিনি বলেন, ‘এক জাতি, এক নির্বাচন’ কোনও বিতর্কের বিষয় নয়, এটি আজকের পরিস্থিতিতে ভারতের প্রয়োজনীয়তার বিষয়। তিনি এই সম্মেলনে প্রতিটি নির্বাচনের জন্য একটি ভোটার তালিকা বানানোর উপরও জোর দেন। তিনি বলেন, এর ফলে অর্থ ও সময়ের অপচয় বন্ধ হবে। প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন লোকসভা,বিধানসভা এবং আঞ্চলিক পঞ্চায়েত নির্বাচন সবই এক ভোটার লিস্টের মাধ্যমেই করা উচিত। কয়েক মাস অন্তর দেশের কোনও না কোনও প্রান্তে নির্বাচন লেগেই থাকে। এর ফলে থেমে থাকে যাবতীয় উন্নয়নমূলক কাজ। তাই এ প্রসঙ্গে আলোচনা হওয়া প্রয়োজন। এই আলোচনা শুরু করতে হবে প্রিসাইডিং অফিসারদের। 

প্রসঙ্গত, ‘এক জাতি, এক নির্বাচন’ এনডিএ সরকারের এক নির্বাচনী সংস্কারমূলক প্রস্তাব। প্রস্তাবিত এই প্রকল্প তুলে ধরা হয়েছিল দেশের সামনে। কিন্তু বিরোধী দলগুলি এই প্রস্তাবের তীব্র বিরোধিতা করে। গতবছর এই ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর ডাকা এক বৈঠক এড়িয়ে গিয়েছিল কংগ্রেস। বামপন্থী দলগুলি সংসদীয় গণতন্ত্রকে পরিবর্তন করার এক চক্রান্ত হিসেবে দেখেছিল প্রধানমন্ত্রীর এই প্রস্তাবকে। মোদি এ দিন তাঁর ভাষণে দেশে ইমারজেন্সি লাগু করার জন্য কংগ্রেসের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের তিনটি বিভাগকে নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছিল ১৯৭০ সালে। এ দিন সংবিধান দিবস পালন করতে গিয়ে মোদি বলেন, সাংসদরা গণতন্ত্রকে মজবুত করেছেন তাদের কাজের মাধ্যমে। প্রধানমন্ত্রী সমস্ত উন্নয়নমূলক কাজ সময়মতো শেষ করার আবেদন জানান। তিনি এই প্রসঙ্গে সর্দার সরোবর প্রকল্প সম্পন্ন হওয়ার প্রসঙ্গও তোলেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only