সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

গোপালনগরে মুখ্যমন্ত্রীর জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে প্রস্তুতি সভা গোবরডাঙায়



এম এ হাকিম, বনগাঁ :  উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁ মহকুমার গোপালনগরে   মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রস্তাবিত সমাবেশকে কেন্দ্র তৃণমূলের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। দলীয় সূত্রে প্রকাশ, আগামী ৯ ডিসেম্বর তিনি গোপালনগরে  দলীয় কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখবেন। সেই জনসমাবেশকে ঐতিহাসিক করে তুলতে এখন থেকেই মাঠে নেমে পড়েছেন জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। তারই অংশ হিসেবে রবিবার বিকেলে গোবরডাঙা টাউনহলে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী ও জেলা তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের উপস্থিতিতে জেলার গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের নিয়ে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এদিন বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সমস্ত বিধানসভা কেন্দ্রের জয় নিশ্চিত করতে মুখ্যমন্ত্রীর সভায় দৃষ্টান্তমূলক জমায়েতের জন্য সবাইকে জোরালো তৎপরতা শুরু করতে বলেছেন।     


বক্তব্য রাখছেন বিধায়ক কাজী আব্দুর রহিম (দিলু)


এদিনের সভায় বাদুড়িয়ার বিধায়ক কাজী আব্দুর রহিম (দিলু) তাঁর বক্তব্যে কেন্দ্রীয় সরকারে ক্ষমতাসীন বিজেপি’র তীব্র সমালোচনা করে বলেন, ‘বিগত ৬ বছরে প্রধানমন্ত্রী কোনও প্রতিশ্রুতি পালন করেন নি। বরং মানুষে মানুষে অবিশ্বাসের বাতাবরণ সৃষ্টি করে ওঁরা দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার বুনিয়াদকে উপড়ে ফেলতে চাচ্ছে। এক বিষাক্ত শক্তি পশ্চিমবঙ্গকে দখল করতে ধেয়ে আসছে, এই শান্তির পশ্চিমবঙ্গ, উন্নয়নের পশ্চিমবঙ্গকে দখল করতে আসছে, শান্তি বিঘ্নিত করতে, সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে আসছে। সর্বোপরি ওঁরা মানুষের সমস্ত সুখ স্বচ্ছন্দকে কেড়ে নেবে, স্বাধীনতা কেড়ে নেবে। ভয়ঙ্কর ওই শক্তিকে প্রতিহত করতে পারে একমাত্র মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল দল।’ তিনি আগামী ৯ ডিসেম্বর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমাবেশকে ঐতিহাসিক সমাবেশে পরিণত করার আহ্বান জানান।   


ওই সভায় উপস্থিত ছিলেন বিধানসভার মুখ্য সচেতক ও জেলা তৃণমূল কংগ্রেস চেয়ারম্যান নির্মল ঘোষ,  বিধায়ক পার্থ ভৌমিক,  জেলা পরিষদের পূর্ত ও পরিবহন কর্মাধ্যক্ষ নারায়ন গোস্বামী, বিধায়ক ধীমান রায়, বিধায়ক পুলিন বিহারী রায়, বিধায়ক সুরজিৎ বিশ্বাস,  জেলা পরিষদের সভাধিপতি বীনা মন্ডল,  বাদুড়িয়ার বিধায়ক কাজী আব্দুর রহিম (দিলু), জেলা পরিষদের বন ও ভূমি স্থায়ী সমিতির কর্মাধ্যক্ষ ও বিশিষ্ট শিক্ষক নেতা জনাব এ কে এম ফারহাদ, জেলা পরিষদের মেন্টর ও সাবেক বিধায়ক গোপাল শেঠ, বনগাঁ শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি শঙ্কর আঢ্য, জেলা পরিষদের  কর্মাধ্যক্ষ রতন ঘোষ, গাইঘাটা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি গোবিন্দ দাসসহ বনগাঁ মহকুমার তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only