রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০

চিনকে ফের কড়া জবাব রাজনাথের

 



শ্রীনগর, ২৯ নভেম্বরঃ ভারত-চিনের এক ডজন আলোচনার পর এলএসিতে উত্তেজনা কিছুটা প্রশমিত হলেও লাদাখে বরফ গলা এখনও শুরু হয়নি। এরইমধ্যে দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর স্পষ্ট বক্তব্য, আত্মসম্মান এবং সুরক্ষা নিয়ে কোনওরকম আপোস নয়। উনি বলেন, ভারত সর্বদাই শান্তির পক্ষে সওয়াল করেছে। এই পথেই একটা নির্দিষ্ট সীমা পর্যন্ত আমরা চলতে বদ্ধপরিকর। 

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর এই বয়ান তাৎপর্যপূর্ণ কারণ, কিছুদিন আগে দু’দেশ পর্যায়ক্রমে সেনা সরানোর ক্ষেত্রে একমত হয়েছিল। কিন্তু এখনও কাজে এর প্রতিফলন দেখা যায়নি। রাজনাথ সিং এক অনুষ্ঠানে দেশের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে বলেন,‘ভারতের উত্তরের সীমান্ত সুরক্ষা বর্তমানে খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এ নিয়ে চিনের সঙ্গে ভারতের মতভেদ রয়েছে। এই সমস্যাকে আমরা কথোপকথনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছি। তিনি জানান, আমরা কোনওভাবেই যুদ্ধ চাই না, কিন্তু আত্মসম্মান ও সুরক্ষার ক্ষেত্রে আমরা কোনও সমঝোতা করা হবে না। রাজনাথ সিং বলেন, সীমান্ত সুরক্ষায় আমরা শুধু ভূমি নয়, ৭ হাজার কিলোমিটার উপকূল রেখা এবং ২১ লক্ষ বর্গকিলোমিটার অর্থনৈতিক অঞ্চল অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ভারত প্রতিটি ক্ষেত্রেই নিজেদের অবস্থানকে শক্তিশালী করেছে। উত্তরের মতো দক্ষিণের সীমান্ত সুরক্ষাতেও ভারত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে পাকিস্তানের অনুপ্রবেশ, আতঙ্কবাদ এবং যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন ভারতের সামনে চ্যালেঞ্জ ছিল। ২০০৮ মুম্বই হামলা, ২০১৭ উরি এবং ২০১৯ -এর পুলওয়ামা হামলা সারা বিশ্বকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ। এখনও আমরা প্রয়োজনে সীমান্তে গিয়ে উগ্রপন্থার মোকাবিলা করছি।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only