মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২০

পাশবিক ! কালাজাদু করতে গণধর্ষণের পর উপড়ে নেওয়া হল শিশুকন্যার ফুসফুস

 


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ­ কানপুরে হাড়হিম করা ঘটনা প্রকাশ্যে।৬ বছরের শিশুকে গণধর্ষণ করে খুন। হত্যার পর উপড়ে নেওয়া হল তার ফুসফুস। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, এর পেছনে রয়েছে ব্ল্যাক ম্যাজিকের মতো অনুশীলন। মূল অভিযুক্ত পরশুরাম কুর্নিলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঠিক কী হয়েছে ঘটনাটি? এএসপি (রুরাল) ব্রজেশ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, দিওয়ালির রাতে ভাদরাস গ্রামে বাজি কিনতে গিয়েছিল বাচ্চাটি। তখন তাকে অপহরণ করা হয়। এরপর মদ্যপ অবস্থায় তাকে একটি জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে খুন করা হয়। নূশংসতা এখানেই শেষ নয়। উপড়ে ফেলা হয় ওই ক্ষুদের ফুসফুসও। তারপর তা অনুকূল কুরিল ও বীরান নামে ২ অভিযুক্ত তুলে দেয় পরশুরামের হাতে। 

শুধুই কি যে।ন লালসা? নাকি অন্য কোনও মতলব এর পেছনে? পুলিশের দাবি, জেরার মুখে অভিযুক্ত পরশুরাম কুর্নিল জানিয়েছেন ১৯৯৯ সালে বিয়ে হয় তার। কিন্তু এতো সময় কেটে গেলেও তাদের কোনও সন্তান ছিল না। তাই ভাইপো অনুকূল ও তার বন্ধু বীরানকে নিয়ে ব্ল্যাকম্যাজিকের এই কুমতলব কষেণ পরশুরাম। পুলিশ আরও জানিয়েছে যে মূল অভিযুক্ত পরশুরাম কুর্নিলকে গ্রেফতার করেছে। আটক করা হয়েছে তার স্ত্রীকে। 

এই ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ধূতদের বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির নির্দেশ দেন। পাশাপাশি মৃতার পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা ক্ষয়ক্ষতির নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only