বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

সোনার বাংলা গড়তে চাইছেন, কেন সোনার উত্তর প্রদেশ হল না :সৌগত



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ দু'দিনের বাংলা সফরে এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে সরাসরি তোপ দাগলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বাঁকুড়া সফরে গিয়ে তিনি রাজ্যের তৃণমূল সরকারে উপড়ে ফেলার ডাক দিয়েছেন। তিনি বলেন, কাল থেকে বাংলায় রয়েছি। যেখানে গিয়েছি এমনই অভিবাদন পেয়েছি। মমতা সরকারের প্রতি ভয়ঙ্কর আক্রোশ দেখতে পাচ্ছি। শাহের কথায়, জনতার মধ্যে মোদি সরকারের প্রতি শ্রদ্ধা ও আস্থা  চোখে পড়ছে। ভারত সরকারের আশ্বাস বাংলার মানুষ পর্যন্ত পৌঁছচ্ছে না। আদিবাসীদের ঘর দেওয়া হয়নি, কৃষকরা ৬ হাজার টাকাও পায়নি। প্রধানমন্ত্রীর সমস্ত যোজনা মমতা সরকার আটকে রাখছে। তাই মানুষের আক্রোশ বাড়ছে। তৃণমূলের মৃত্যুঘণ্টা বেজে গিয়েছে। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট নিয়ে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি।

এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর একের পর এক অভিযোগ খন্ডন করেছেন দমদমের তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। বিজেপিকে কটাক্ষ করে তৃণমূলের এই বর্ষীয়ান নেতা বলেন, মমতা সরকারের কোনও মৃত্যু ঘণ্টা বাজেনি। মমতা সরকার আছে এবং আমাগীদিনেও থাকবে। বাংলায় বিজেপি যে দুই-তৃতীয়াংশ ভোটে জিতবে এটা অমিত শাহর দিবা স্বপ্ন। 

তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন, আদীবাসী ও পিছিয়ে মানুষদের স্বার্থ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেখছেন এবং সে কারণেই মানুষের আস্থা রয়েছে। মতুয়া বা আদিবাসীদের বাড়িতে গিয়ে অমিত শাহ যেটা করছেন সেটা নেহাতই লোক দেখানো। আদিবাসী ভাইরা জানেন বিজেপি উচ্চবর্গদের দল। ওরা গরীব লোকেদের নিয়ে মাথা ঘামায় না। ওরা আদানি, আম্বানিদের নিয়ে মাথা ঘামায়। যদি সোনার বাংলাই তৈরি করবেন তাহলে সোনার উত্তরপ্রদেশ তৈরি করতে পারছেন না কেন? 

সৌগত রায়ের কথায়, নির্বাচনী সভা ছয় মাস আগেই করে যাচ্ছেন। বাংলার মানুষ মমতার পাশে ছিল এবং থাকবে। কোভিড পরিস্থিতি রাজ্য সরকার যেভাবে সামলেছে তাতে আরও মানুষ ওর পাশে থাকবে। দুর্গাপুজো ভাল ভাবে নিয়ন্ত্রন করেছেন, হাইকোর্ট তার প্রশংসা করেছেন। অমিত শাহরা আসবেন, যাবেন। অমিত শাহর সফরে বিজেপির অবস্থা বাংলায় বদলাবে না। বরং নিজের দলকে সামালাক তারা। ভোটে লড়ার অবস্থাতেই নেই বিজেপি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only