বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

৫০ জনেরও বেশি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল গ্যাংস্টার বিকাশের, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট সিটের

 


কানপুর, ৫ নভেম্বর: কানপুরের কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের সঙ্গে যোগ ছিল ৫০ জনেরও বেশি পুলিশ কর্মীর। এমনই চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট জমা দিল স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম (সিট)।

ডিএসপি দেবেন্দ্র মিশ্র সহ ৮জন পুলিশকর্মীকে নূশংস খুন। তারপর সেখান থেকে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পগারপাড় গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে! শেষমেশ নাগাল পাওয়া যায় উজ্জয়নীতে। তারপর এনকাউন্টারে নিহত অপরাধ জগতের বেতাজ বাদশা বিকাশ দুবে। পুলিশের এই এনকাউন্টার নিয়ে উঠেছে নানা প্রশ্ন। যেমন কীভাবে গাড়ি উল্টে গেল, কেন বিকাশকে কোনও হাতকড়া পড়ানো হয়নি। বিরোধী শিবির থেকে বারবার ফেক এনকাউন্টারের তত্ত্ব তুলে ধরা হয়েছে। কেন এনকাউন্টার হল, তার উপযুক্ত তদন্তের দাবি জানিয়েছিল কংগ্রেস, সপা, তূণমূল সহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল।

বূহস্পতিবার ৩২০০ পাতার রিপোর্ট জমা দেয় সিট। এরমধ্যে ৭০০ পাতা জুড়ে উল্লেখ করা হয়েছে রাজ্য পুলিশের সঙ্গে অপরাধ জগতের বেতাজ বাদশার যোগাযোগের বিষয়টি। এই যোগাযোগের জেরেই বিকাশের বিরুদ্ধে পুলিশ স্টেশনে কী পদক্ষেপ নিচ্ছে, তা জানতে পেরে যেত বিকাশ। ৩ জুলাই পুলিশের অভিযানের খবর কীভাবে বিকাশ ও তার গ্যাং আগেই পেয়েছিল, তাও উল্লেখ করা হয়েছে সিটের রিপোর্টে। এই যোগসাজসের অভিযোগে ইতিমধ্যে কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগও সত্য প্রমাণ হয়েছে বলে খবরগত ৩১ জুলাই এই রিপোর্ট জমা দেওয়ার দিন নির্ধারিত হলেও তদন্তের স্বার্থে সেই সময়সীমা বাড়ানো হয়

সূত্রের খবর, সিট এই রিপোর্ট তৈরির আগে ১০০জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাদের মধ্যে ছিলেন পুলিশকর্মীরা। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বিকরু গ্রামের বাসিন্দা ও কানপুরের একাধিক ব্যবসায়ীকে।

 

 

 

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only