মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

সউদি ঋণ পরিশোধে পাকিস্তানকে আরও ১৫০ কোটি ডলার দিচ্ছে চিন




পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃপাকিস্তানকে ঋণের জাল থেকে উদ্ধার করতে আবারও অবিলম্বে ১৫০ কোটি ডলার আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে চিন। সউদি আরবের কাছে পাকিস্তানের ২০০ কোটি ডলারের ঋণ আছে। এক্ষেত্রে চিন যে আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে সেখান থেকে ১০০ কোটি ডলার পরিশোধ করা হবে  সোমবার। বাকি ১০০ কোটি জানুয়ারিতে শোধ করার কথা রয়েছে। পাকিস্তানের অর্থ মন্ত্রণালয় এবং স্টেট ব্যাঙ্ক অফ পাকিস্তানের (এসবিপি) সূত্রগুলো বলেছেন, সউদি আরবের ঋণ থেকে পাকিস্তানকে মুক্ত করতে গিয়ে উলটো তাকে আবার আর্থিক সুবিধা দিচ্ছে চিন। সাধারণত স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফ ফরেন এক্সচেঞ্জ (এসএএফই বা সেফ নামেই বেশি পরিচিত) থেকে চিন এ জাতীয় ঋণ দিয়ে থাকে। কিন্তু এবার সেখান থেকে পাকিস্তানকে তারা ঋণ দিচ্ছে না। আবার এই ঋণ বাণিজ্যিক ঋণও নয়। এর পরিবর্তে দুই দেশ ২০১১ সালে স্বাক্ষরিত কারেন্সিসোয়াপ এগ্রিমেন্টের (সিএসএ) আকার আরও ১০০০ কোটি চায়না ইয়েন বা প্রায় ১৫০ কোটি ডলার বাড়াতে একমত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সূত্র। এর ফলে এই বাণিজ্যিক চুক্তির অধীনে পাকিস্তানকে দেওয়া চিনের মোট সুবিধার আকার বেড়ে দাঁড়াল ২০০০ কোটি ইয়েন বা ৪৫০ কোটি ডলার। উল্লেখ্য, সিএসএ হলো চিনের একটি বাণিজ্যিক আর্থিক সহায়তা, যা পাকিস্তান ২০১১ সালের চুক্তির অধীনে ব্যবহার করে আসছে বিদেশি ঋণশোধ করার জন্য। একইসঙ্গে তারা নিজেদের বৈদেশিক মুদ্রার মজুত একটি স্বস্তিজনক পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছে। তবে বাড়তি যে ১৫০ কোটি ডলারের নতুন ঋণ পাকিস্তান পাচ্ছে এটাকে কেন্দ্রীয় সরকারের ঋণ হিসেবে দেখা হবে না। একে বিদেশে পাকিস্তানের সরকারি ঋণ হিসেবেও দেখা হবে না। এসবিপি এবং অর্থ মন্ত্রণালয় উভয় খাতের মুখপাত্ররা এ রিপোর্টের সত্যতা প্রত্যাখ্যান বা নিশ্চিত কোনওটিই করেননি। অর্থ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এটাকে দ্বিপক্ষীয় গোপনীয় বিষয় বলে উল্লেখ করলেও প্রশ্ন এড়িয়ে গেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের মুখপাত্র।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only