শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০

অর্জুনকে পুড়িয়ে মারার দুর্গন্ধ রুখতে আগুনে ঘী, ধূপ, সল্টলেকে নরকঙ্কাল উদ্ধার



পুবের কলম প্রতিবেদক‌: সল্টলেকে নরকঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় নয়া মোড়। বৃহস্পতিবার রাতে অভিজাত সল্টলেক এ জে ব্লকের ২২৬ নম্বর বাড়িতে নরকঙ্কাল উদ্ধারে তৎপর পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নেমে রহস্য ফাঁস। তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, নরকঙ্কালটি ধৃত গৃহকর্ত্রী গীতা মহেনশারিয়ার বড় ছেলে অর্জুনই। মহিলার স্বামী অনিল মাহেনশারিয়া অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার রাতেই। মহিলাকে জেরায় পুলিশ জানতে পেরেছে, বছর পঁচিশের বয়সী অর্জুনকে সল্টলেকের বাড়িতে খুন করে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। 


অর্জুনকে পুড়িয়ে মারতে প্রতিবেশিরা যাতে কোন দুর্গন্ধ না পান তার কৌশলী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। যুবককে আগুনে পুড়িয়ে মারার সময়কালীন পাশে আরও একটি আগুন জ্বালান হয়। অর্জুনকে মারার সময় পাশের ওই আগুনে গোলায় ঘী, ধূপ, ধুনো, কর্পূর সহ যাবতীয় সুগন্ধী দ্রব্য সামগ্রীপোড়ান হয়েছিল। পুলিশ তদন্তে সংর্শ্লিষ্ট বাড়ি থেকে রক্তমাখা একটি নোড়া উদ্ধার করে। পাশাপাশি মহিলার এক মেয়ে এই অপরাধের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে বলে পুলিশ জানতে পারছে। তাঁকে ধরতে বিধাননগর পুলিশের একটি দল বেরিয়ে পড়েছে। 


সেইসঙ্গে, বড় ছেলেকে নৃশংস ভাবে খুন করার পিছনে কি কারণ। বা এই ঘটনার সঙ্গে আর কারা কারা যুক্ত তা মহিলাকে আরও জিঞ্জসাবাদ করবে পুলিশ। সম্পত্তি বিবাদে এই খুন কি না সে বিষটিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কারণ, পুলিশ জানতে পারছে পারিবারিক অশান্তির জেরে মহিলার স্বামী অনিল মাহেনশারিয়া রাজারহাটের একটি আবাসনের থাকছিলেন। দু’ই ছেলে আমেরিকায় পড়াশুনো করতেন। আর এক মেয়ে ছিলেন বেঙ্গালরে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only