মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

মহিলাদের সেলাই-এর কাজ শিখিয়ে পথ দেখাচ্ছে ‘হুরাইন’



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ রাজ্য সংখ্যালঘু উন্নয়ন দফতরের অধীনে নিফট থেকে ফ্যাশান ডিজাইনের কোর্স করে পোশাক শিল্পের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সামাজিক কাজ করার প্রবল ইচ্ছা ছিল সামিউর রহমানের। সেই ইচ্ছাকে মান্যতা দিয়ে বছরূানেক আগে তৈরি করেছেন ‘হুরাইন’ নামক একটি সংস্থা। সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও বিত্তনিগমের ‘মিলন উৎসবে’ যাত্রা শুরু করে। এর পরই গোটা দেশে লকডাউন শুরু হয়ে যায়। ফলে অনলাইনে ব্যবসা শুরু করে হুরাইন। অ্যামাজন, ফিল্পকার্ট, মানত্রাতেও হুরাইনের সমস্ত পোশাক পাওযা যায়।  সোমবার রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডে শুরু হল ‘হুরাইনের’ স্টোরের মাধ্যমে পথ চলা। 

সোমবার হুরাইনের কর্ণধার সামিউর রহমান বলেন, তাঁদের কর্মী ৮০ শতাংশ মহিলা। বোরখা, স্কার্ফ, হিজাব, ওড়না সব কিছুরই ডিজাইন করার কাজে মহিলারা এগিয়ে যাচ্ছে। সেদিকে লক্ষ্য রেূেই ‘হুরাইনের’ সমস্ত ডিজাইন তাঁরাই তৈরি করছেন। মেয়েদের স্বনির্ভর করতেই এই উদ্যোগ নিয়েছে ‘হুরাইন’। তিনি বলেন, বিত্তনিগমের প্রচেষ্টাকে গুরুত্ব দিয়ে তৈরি হয়েছে আধুনিক দুনিয়ার ফ্যাশান ডিজাইন। তিনি বলেন, হুরাইনের বৈশিষ্ট্য হল, শালীনতা বজায় রেূে সমস্ত পোশাক তৈরি হবে। আর সকলের নজর কাড়বে। 


ইসলাম যে শালিনতার শিক্ষা দেয় পুরোপুরি সেটা অনুসরণ করে স্কার্ফ, বোরখা, হিজাব তৈরি করছে। মেয়েদের স্বনির্ভরতার জন্য বাড়িতেই সেলাই করানো হচ্ছে। অনেকে নতুন কাজ করছেন। তাঁদের শেখানো হচ্ছে একেবারে বিনামূল্যে। তাঁদের সেলাই মেশিনও দেবে ‘হুরাইন গ্র‍ুপ’। হুরাইন অনলাইন বেশ জনপ্রিয় হলেও ইকোফ্রেন্ডলি কোম্পানী। কাপড়ের কোনও অংশই বাদ যাচ্ছে না। ছোট ছোট কাপড় দিয়ে তৈরি হচ্ছে মাস্ক। সামিউর রহমান বলেন, ২০২০ কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে কাটল। আল্লাহর কাছে দোয়া করছি, ২০২১ সালে আমরা ভালো কিছু করতে পারব।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only