শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০

নকসী কাঁথা শিল্পীদের সম্মানিত করতে নিজেই উদ্যোগ নিলেন বিশিষ্ট সূচিশিল্পী জোহর আলি মল্লিক

 



ইনামুল হক, বারাসতঃ বাংলার কুটির শিল্পের চিরন্তন ঐতিহ্য নকসী কাঁথার শিল্পীদের সম্মানিত করতে নিজেই উদ্যোগ  নিলেন বিশিষ্ট সূচিশিল্পী জোহর আলি মল্লিক। জেলা ও রাজ্য স্তরের পুরস্কারপ্রাপ্ত এই শিল্পী নিজের গ্রাম উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুরের বড়ায় তার নিজ হাতে প্রতিষ্ঠিত মল্লিক আর্ট  গ্যালারি  প্রাঙ্গনে এক সূচিশিল্প প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীর আয়োজন করে। শনিবার এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন  করেন  ভারত সরকারের টেক্সটাইল মন্ত্রকের  ডেভেলপমেন্ট কমিশন (হ্যান্ডিক্রাফটস) এর  অ্যাসিসটেন্ঢ ডাইরেক্টর লীলা ভৌমিক। উপস্থিত ছিলেন  বিশিষ্ট তথ্যচিত্র  নির্মাতা রূপক প্রামাণিক,  পুলিশ আধিকারিক এসিপি, বিধাননগর কমিশনারেট পরেশ রায়,  বারাসত থানার এস আই পিকে বিশ্বাস, বারাসত পুরসভার  বোর্ড অব অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের সদস্য পান্নালাল বসু, শিক্ষক ও সাংবাদিক ইনামুল হক, সাাংবাদিক বাপি দাস, ,  সমাজসেবী আলি আক্তার, ফয়েজ আলি প্রমূখ। সূচিশিল্পী জোহর আলি মল্লিক জানান, বাংলার গৌরবগাঁথা বাঙালির নকসী-- যা আজও বেঁচে  রয়েছে গ্রাম বাংলার মা বোনেদের হাত ধরে। দেশে ও বিদেশে আজও সমান চাহিদা রয়েছে এই নকসী কাঁথার। কিন্তু বর্তমান  প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের  এই কাজে নিযুক্ত  করতে সরকারিভাবে উদ্যোগ  নেওয়া  জরুরী। তাতে স্বনির্ভরতার  পাশাপাশি  বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই  শিল্প  বিশ্বের দরবারে আরো সমাদৃত হবে। তার আক্ষেপ গ্রামীণ  নকসী কাঁথাশিল্পীরা সেভাবে সরকারি স্বীকৃতি পায় না। তাই তাদের উৎসাহিত করতে একদম ব্যক্তিগত উদ্যোগে এই প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি। এদিন সফল প্রতিযোগী মাসকুরা  বিবি , চাঁপাবিবি ও নাসিমা বিবিদের হাতে তাদের সাফল্যের স্বীকৃতি পুরস্কার স্বরূপ অর্থমূল্যের চেক তুলে দেওয়া হয় মল্লিক আর্ট গ্যালারির পক্ষ থেকে।ডেভেলপমেন্ট কমিশন (হ্যান্ডিক্রাফটস) এর  অ্যাসিসটেন্ঢ ডাইরেক্টর লীলা ভৌমিক বলেন,  জোহর আলির মতো শিল্পীদের খুঁজে  বার করতে এ ধরনের সূচিশিল্প প্রতিযোগিতার প্রয়োজনীয়তা  রয়েছে। আমরা সরকারিভাবে  স্বীকৃতিজানাতে তাদের জন্য  বিশেষ  পরিচয়পত্রের ব্যবস্থা  করেছি। এদিন  সূচিশিল্প জোহর আলি মল্লিকের  জীবন ও শিল্প  কর্ম নিয়ে একটি তথ্যচিত্রের সিডি প্রকাশিত হয়। পরে এটি এখানে দেখানো হয়। তথ্য চিত্র নির্মাতা, পরিচালক বিশিষ্ট  সাংবাদিক  রূপক প্রামাণিক  বলেন, বাংলার আনাচে কানাচে থেকে জোহর আলি মল্লিকের মতো শিল্পীদের তুলে আনতে এই প্রয়াস।তিনি যেভাবে  গ্রামীণ মহিলাদের  স্বরোজগারের পথ দেখিয়েছেন তা দৃষ্টান্তমূলক।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only